অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নারীদের একটি বিশেষ ধরণের রোগ হচ্ছে ফিস্টুলা। গর্ভকালীন সময়ে যথাযথ ধাত্রীসেবা সেবা না পেলে মায়ের ফিস্টুলার ঝুঁকি থেকে যায়। ফিস্টুলার ভয়াবহতা সম্পর্কে সচেতন করতে বিশ্বব্যাপী প্রতিবছরের ন্যায় বাংলাদেশেও ২৩মে ‘আন্তর্জাতিক ফিস্টুলা দিবস’ পালিত হচ্ছে। দিবসটির এ বছরের প্রতিপাদ্য, Tracking Fistula – Transforming Lives।

রোগটি আসলে কি? কথা বলেছিলাম ডা.ফারহানা আক্তারের সাথে। তিনি এঞ্জেন্ডার হেলথ বাংলাদেশ এর,সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। নারীদের গর্ভকালীন সময়ে মাসিকের নালীর সাথে মল এবং মূত্রের নালী এক হয়ে গিয়ে এই রোগের উদ্ভব হয়। এই রোগটির নামই হচ্ছে ফিস্টুলা।

২০১৫ সালে দিবসটি পালনের প্রাক্কালে আমরা জানার চেষ্টা করেছি বাংলাদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপট।

ইউএনএফপিএ এর একটি রিপোর্ট অনুযায়ী বাংলাদেশে বর্তমানে এক লক্ষ মহিলা ফিস্টুলা রোগী রয়েছে। এবং প্রতিবছর আরো দুই হাজার করে নতুন রোগী আক্রান্ত হচ্ছে।

বাংলাদেশে আশংকাজনক হারে বিস্তার ঘটছে এই রোগের। এর পেছনে মূল কারন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে অপ্রাপ্ত বয়সে মেয়েদের বিয়ে দেয়া। আঠার বছর বয়সের নিচে বিয়ে হলে শারিরীক এবং মানষিক বিকাশ বাধাগ্রস্ত হয়। সাথে সাথে নির্দিষ্ট বয়সের আগেই সন্তান ধারন করলে গর্ভকালীন সময়ে নানা জটিলতার সৃষ্টি হয়। যার মধ্যে ভয়াবহ হচ্ছে ফিস্টুলা।

সচেতনতা সাথে আরো কিছু পরামর্শ ডা.ফারহানার, এই রোগ থেকে বাঁচতে। তিনি বললেন, বাল্যবিবাহ বন্ধ এবং গর্ভবতী মায়েদের সঠিক ধাত্রীসেবা দেয়ার কথা। গর্ভধারনের পর থেকে পুরোটা সময় ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চললে ফিস্টুলার ঝুঁকি এড়িয়ে চলা সম্ভব।

রোগ চিহ্নিত করা গেলে চিকিৎসা সহজ হয়।আপনি কি করে বুঝবেন,আপনি ফিস্টুলায় আক্রান্ত?

এঞ্জেন্ডার বাংলাদেশে এর ফিস্টুলা কেয়ার প্রজেক্টের, প্রজেক্ট ম্যানেজার ডা.এস কে নাজমুল হুদা বললেন সে কথা। যখন প্রসবের সময় ব্যাথা দীর্ঘ হয় যাকে বাধাগ্রস্ত প্রসব বলা হয়ে থাকে তখন ধারণ করা হয়ে থাকে মা ফিস্টুলার ঝুঁকিতে রয়েছেন। প্রসব পরবর্তীতে যদি মা দেখেন তার মাসিকের রাস্তা দিয়ে অনবরত মল এবং মূত্র বের হচ্ছে তখন বোঝা যায় তিনি ফিস্টুলার আক্রান্ত।

আক্রান্ত আপনি? কোথায় যাবেন চিকিৎসা নিতে?

ঢাকা মেডিকেলের ন্যাশনাল ফিস্টুলা সেন্টার, আদ-দ্বীন হাসপাতাল সহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ফিস্টুলার সুচিকিৎসা পাওয়া যায়। ফিস্টুলার চিকিৎসা সম্পুর্ন বিনামূল্যে দেয়া হয়।

আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের সাথে রোগ-ব্যাধি ওতপ্রোতভাবে জড়িত।কিন্তু চেষ্টা থাকতে হবে সবার,কিভাবে প্রতিরোধ সাথে প্রতিকার করা যায় এইসব রোগ।

XS
SM
MD
LG