অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশেষজ্ঞরা বলছেন প্রায় ৫ থেকে ১০ শতাংশ মানুষ ডিস্লেক্সিয়ায় ভুগছেন। এই রোগের কারণে রোগী উল্টো করে লেখেন বা পড়েন। ভয়েস অব আমেরিকার রিপোর্টের সূত্র ধরে শতরূপা বড়ূয়া জানাচ্ছেন বিস্তারিত।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেনেসা হারার মনে করেন, এর যারা ডিস্লেক্সিয়ায় ভুগছেন, তাদের এক ইন্দ্রিয় থেকে অন্য ইন্দ্রিয়ে মনোযোগ সরিয়ে নিতে অসুবিধা হয়। যেমন, কোন কিছু দেখা থেকে মনো্যোগ সরিয়ে কোন কিছু শুনতে হলে, তা তাঁরা করতে ব্যর্থ হন।
ধরুন আপনি কিছু একটা পড়ার চেষ্টা করছেন, এবং যে সেই একই লেখা পড়ছে তার সঙ্গে মিলিয়ে তা শোনার চেষ্টা করছেন, কিন্তু আপনার যদি ডিস্লেক্সিয়ার সমস্যা থাকে তাহলে আপনি একই সঙ্গে দুটি কাজ করতে পারবেন না। আপনি পড়বেন অথবা শুনবেন। কিন্তু আপনি লেখার সাথে মিলিয়ে কথা শুনতে পারবেন না। ডিস্লেক্সিয়ার রোগীদের মনোযোগ স্থানান্তরে সমস্যা হয়।

ডিস্লেক্সিয়া নিয়ে এখন নানা ধরনের গবেষণা চলছে। বিশেষ করে মস্তিষ্কের যে অংশ শ্রবণ ও দর্শনের সমন্বয় ঘটায় তা নিয়ে।
ডঃ হারারের নিজেরও ডিস্লেক্সিয়ার সমস্যা আছে। তিনি একটি গবেষণার নেতৃত্ব দিয়েছেন। গবেষণায় অংশ নিয়েছেন ডিস্লেক্সিয়ার রোগীরা। সেই গবেষণায় যাদের ডিস্লেক্সিয়া আছে, তাদের একটি শব্দ শুনলে, আলো দেখলে বা দুটোই একই সঙ্গে অনুভব করলে একটি বোতামে চাপ দিতে বলা হয়। কত দ্রুত তারা বোতামে চাপ দিচ্ছেন তা রেকর্ড করা হয় এবং পরে বিশ্লেষণ করা হয়।
এই গবেষণায় দেখা গেছে, যারা ডিস্লেক্সিয়ায় ভুগছেন তাদের আলো থেকে শব্দে মনোযোগ ফেরাতে স্বাভাবিকের চাইতে বেশি সময় লাগছে।

অনুসন্ধানকারীরা বলছেন, এই ফলাফল ভবিষ্যতে ডিস্লেক্সিয়ায় আক্রান্তদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার সময় মনে রাখা দরকার।
ডঃ হারার মনে করেন, অ্যাকশনধর্মী ভিডিও গেইম খেলার মাধ্যমে ডিস্লেক্সিয়ায় আক্রান্তরা উপকৃত হতে পারেন।
ভিডিও গেইমে সবসময় এখানে সেখানে জিনিস গজিয়ে ওঠে। ভিডিও গেইমে সারাক্ষণই পর্দার এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে নজর বুলাতে হয়। এবং আপনি যত ভিডিও গেইম খেলবেন তত আপনি দক্ষ হয়ে উঠবেন। সুতরাং আপনার মনোযোগ এক স্থান থেকে আরেক স্থানে দ্রুত সরিয়ে নেয়ার প্রশিক্ষণ দেয় ভিডিও গেইম।

ডিস্লেক্সিয়ার আরো নানা রকম উপসর্গ আছে। এবং এক রোগী আরেক রোগীর চাইতে অনেক আলাদা। ভবিষ্যতে গবেষকরা প্রত্যেক রোগীর জন্যে আলাদা আলাদা প্রশিক্ষণের ব্যবস্থার চেষ্টা করছেন।
XS
SM
MD
LG