অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মিশরের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মোরসির সমর্থকরা কায়রোতে যে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদের দুটি স্থান বেছে নিয়েছিল, মিশরের নিরাপত্তা বাহিনী সাযোঁয়া যান, বুল ডোজার, কাদানে গ্যাস, এবং চোরাগুপ্তা হত্যাকারীদের নিয়ে তাদের হঠিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়ার পর বহু হতাহতের খবর পাওয়া গেছে।

গন্ডগোলের মাঝে বিভিন্ন মৃতের সংখ্যা পাওয়া যাচ্ছে। ফরাসী সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে দমন অভিযানে ১২৪ জন মারা যায়। Muslim Brotherhood ওই অভিযানকে হত্যাকান্ড বলে আখ্যায়িত করেছে এবং বলেছে মৃতের সংখ্যা কয়েক শত। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয় মিশরের নিরাপত্তা বাহিনীর ৬ জন সদস্য নিহত হয় এবং ৬৬ জন আহত হয়।

প্রত্যখ্যদর্শীরা এবং বিদেশী সাংবাদিকরা জানিয়েছেন নিরাপত্তা বাহিনী শটগান ও স্বয়ংক্রিয় রাইফেল দিয়ে তাজা গুলি ছোড়ে। ওদিকে সেনা বাহিনী মোরসি পন্থী সমর্থকদের ছবি প্রকাশ করেছে এবং তাতে তারা নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে অস্ত্র ব্যবহার করতে দেখা যায়। Brotherhoodএর নেতৃবর্গ সহ বহু মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অস্থিতিশীলতা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে রাজধানীর বাইরে Minya , Assiut এবং Alexandriaতে. Suez এ ৫ জন নিহত হয়।

টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক বিবৃতিতে সরকারের এক মুখপাত্র কায়রোর সহিংসতার জন্য Muslim Brotherhood কে দোষারোপ করে। বিবৃতিতে পুলিশদের অভিনন্দন জানানো হয় তাদের পেশাদারী কাজের জন্য।
XS
SM
MD
LG