অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

য়ুরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি নিয়ে সেলিম জাহানের বিশ্লেষন


গ্রীসে ৭৭ বছর বয়সি এক অবসরপ্রাপ্ত কেমিস্ট আত্মহত্যা করার আগে লিখে যান – আমাকে আর যাতে বেঁচে থাকার তাগিদে খাবারের জন্যে আঁস্তকূড় হাঁতড়াতে না হয সেজনে সম্মানজনকভাবে জীবনাবসান বই আমার আর কোনো গতি ছিলো না ।
অথবা , গ্রীক এক সঙ্গীতশিল্পি দু’ বছরেরও বেশি বেকার থাকবার পর উপয়ান্তর না দেখে ৯০ বছর বয়সি মার হার ধ’রে দু’জন একসঙ্গে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে জীবনের জ্বালা জুড়িয়েছেন – এই যে য়ুরোপের অর্থনীতির সংকট – ঋণ সমস্যা , এখন কোন অবস্থায় , কতোখানি সঙ্গীন বলে মনে হয় – কোনো সমাধান , অদূর ভবিষ্যতে নজরে আসছে কিনা এ প্রশ্নে ও সেই একই সঙ্গে , যুক্তরাষ্ট্রের যে অর্থনীতি বহূলাংশেই য়ুরোপের অর্থনীতির ওপর নির্ভরশীল বলে মনে করা হয় যেহেতু রফতানী বানিজ্যের খাতে বহূ পন্য সামগ্রীই যুক্তরাষ্ট্র থেকে য়ুরোপে রফতানী করা হয়ে থাকে । কিন্ত তার পরেও এই মুহুর্তে যুক্তরাষ্ট্রের যে ভোক্তাখাতকে দেশের অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি রূপে গন্য করা হয় , সেখানে , মৃদু হলেও বেশ কিছু ইতিবাচক চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে গত জুলাই মাসে – বিক্রি বাট্রা বেড়েছে , বাড়ছে এখনো এবং আশা করা হচ্ছে চলতি বছরে অর্থনীতি হয়তোবা ভালোর দিকে ঘুরে দাঁড়াতে পারে । এ সম্পর্কিত বিশ্লেষন , পর্যালোচনা করার লক্ষে এ রিপোর্ট প্রণীত হয় । এবং য়ুরোপে অর্থনীতির অবস্থা এখন কেমন – যুক্তরাষ্ট্র অর্থনীতির গতিধারা কোনপথে , এ সব নিয়ে আলোচনা করেছেন নিউ ইয়র্ক প্রবাসী অর্থনীতিবীদ ডক্টর সেলিম জাহান । ওয়াশিংটন স্টুডিও থেকে তাঁর সঙ্গে কথা বলেন সরকার কবীরূদ্দীন ।

XS
SM
MD
LG