অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসুচিতে যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতার অঙ্গীকার : ইউএসএআইডি প্রধান রাজিব শাহ

  • আমির খসরু

যুক্তরাষ্ট্রের সরকার ভবিষ্যতে খাদ্য নিরাপত্তা উদ্যোগে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে বিভিন্ন দেশের সরকারের সঙ্গে কাজ করবে বলে যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থার প্রধান ড রাজিব শাহ অঙ্গীকার করেছেন। ঢাকার সোনারগাঁও হোটেলে বাংলাদেশ নিরাপত্তা বিনিয়োগ ফোরাম-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমেরিকান আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা বা USAID ‘র প্রধান ড রাজিব শাহ বক্তব্য রাখেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরে এক সংবাদ সম্মেলনে ড রাজিব শাহ বলেন যুক্তরাষ্ট্রের সরকার অংশীদ্বারিত্বের ভিত্তিতে বিশ্বজুড়ে ক্ষুধা ও পুষ্টিহীনতার বিস্তার রোধের মাধ্যমে খাদ্য সঙ্কট মোকাবিলার জন্য কাজ করছে। আর এটা হচ্ছে যুক্তরাস্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিন্টনের দৃঢ় অঙ্গিকার। ড রজিব শাহ জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের উপরও বক্তব্য রাখেন।

বুধবার এই অনুষ্ঠান উদ্বোধনকালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন যে কেবলমাত্র খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করলেই চলবে না খাদ্যমূল্য আনতে হবে মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে।কৃষিখাতে প্রবৃদ্ধি অর্জন দারিদ্র বিমোচনের সর্বোত্তম পথ। তাই সরকার কৃষি উৎপাদন বাড়াতে কৃষি খাতে বর্ধিত হারে ভর্তুকি প্রদান ও কৃষি উপকরণ সহজলভ্য করাসহ বিভিন্ন কৃষকবান্ধব কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। তিনি সবার জন্য খাদ্য নিরাপত্তা গড়ে তুলে দারিদ্র্য বিমোচনে তাঁর সরকারের অঙ্গীকারের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন। এ জন্য জনগণের খাদ্য ক্রয়ের ক্ষমতা অর্জন করতে হবে। সার্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ২০১৫ সালের মধ্যে সরকার ৮ শতাংশ হারে প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করেছে।

খাদ্য ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী আবদুল লতিফ বিশ্বাস,খাদ্য ও কৃষি সংস্থার এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের প্রতিনিধি হিরো ইউকি কুনমা, খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. ডেভিড নাবারো, আইএসপিআরআই মহাপরিচালক ড. সিজান কেন প্রমুখ।

XS
SM
MD
LG