অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ফ্রান্সের নিসে মানুষের ভীড়ে ট্রাক চালিয়ে ৮৪ জনকে হত্যা করেছে ঘাতক


মানুষের ভীড়ের মধ্যে ট্রাক চালিয়ে ৮৪ জনকে পিষ্ঠ করে হত্যা করেছে এক ঘাতক ড্রাইভার বৃহস্পতিবার রাতে ফ্রান্সের নিস নামক স্থানে জাতীয় দিবস বা Bastille Day (ব্যাষ্টিল ডে) উদযাপনের সময়।

ঘাতক ড্রাইভার টানা দুই কিলোমিটার মানুষের ভীড়ের ওপর দিয়ে তাদেরকে পিষ্ঠ করতে করতে ট্রাকটি চালায়। পুলিশের গুলীতে সে মারা যাওয়ার পর থামে ট্রাকটি। ট্রাকটি গ্রেনেডে ভর্তি ছিল বলে জানায় পুলিশ।

নিহতদের মধ্যে দুজন আমেরিকান নাগরিক রয়েছেন বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়। নিহতদের মধ্যে বহু শিশু, বেশ কিছু পুলিশ কর্মকর্তা রয়েছে বলে জানায় নিস পুলিশ কতৃপক্ষ।

নিসে বসবাসকারী ৩১ বছর বয়সী নিহত ঘাতকের নাম মোহামেদ লাহোয়াইজ বৌলেল; সে একজন ফ্রেঞ্চ-তিউনিসিয়ান। স্থানীয় পুলিশের খাতায় তার বিরুদ্ধে অপরাধের অভিযোগ ছিল আগে থেকেই। তবে সন্ত্রাসী হিসাবে নিরাপত্তা কতৃপক্ষের কাছে সন্দেহের তালিকায় সে ছিলনা।

ফরাসী প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলান্দ বলেছেন, “ এটি একটি সন্ত্রাসী হামলা”। শুক্রবার জাতীর উদ্দেশ্যে দেয়া বক্তব্যে ওলান্দ বলেন, “ফ্রান্স ইসলামিক ষ্টেটের হামলার হুমকীতে রয়েছে। এই অবস্থায় আমাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে এবং তাদেরকে পরাস্ত করার জন্য দৃঢ় মনোবলে লড়তে হবে”।

কেউ এই হামলার দায় স্বীকার না করলেও ইসলামিক ষ্টেট অনলাইনে ঘটনায় তাদের উৎফুল্ল প্রতিক্রিয়া দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাসহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দ ওই হামলায় নিন্দা প্রকাশ করে নিহতদের প্রতি শোক জানিয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন এটি একটি ভয়াবহ সন্ত্রাসী ঘটনা। ডেমোক্রেটিক ও রিপাবলিকার দলের দুই প্রেসিডেন্ট প্রার্থী যথাক্রমে হালারী ক্লিনটন ও ডনাল্ড ট্রাম্প ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন।

জাতিংঘের এক বিবৃতিতে হামলাকে বর্বর ও কাপুরুষোচিত বলা হয়েছে। এছাড়া বৃটেন বেলজিয়াম, জার্মানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র প্রধানরা ফ্রান্সের ঘটনায় শোক ও নন্দা জানান।

ফ্রান্সে শুক্রবারের সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ। রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদের কাছে শুক্রবার পাঠান এক বার্তায় দক্ষিণাঞ্চলীয় নিস শহরে বাস্তিল দিবসের উৎসব উপভোগ রত জনতার ওপর সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি নিহত ও আহতদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করে বলেন বাংলাদেশ সব সময় সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় ফ্রান্সের পাশে থাকবে। বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা ফ্রান্সে সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়েছেন।

এদিকে, ফ্রান্স থেকে পাওয়া খবরে জানা গেছে এযাবৎ নিস শহরে কোন বাংলাদেশী হতাহত হওয়ার তথ্য জানা যায়নি। ফ্রান্সে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শাহিদুল ইসলাম ঢাকায় সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন সন্ত্রাসী হামলায় হতাহতের মধ্যে কোন বাংলাদেশি আছেন কিনা তার খোজ নেয়া হচ্ছে। নিসের ঘটনায় ৮৪ জন নিহত হয়েছেন।

ফ্রান্সে সন্ত্রাসী ঘটনায় উদ্বিগ্ন ভারতবাসী। জানাচ্ছেন গৌতম গুপ্ত।

বৃটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী টেরিসা মে, ফ্রান্সের নিসে ভয়াবহ জঙ্গি হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। এদিকে নল্ডনের নিরাপত্তা জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন মেয়র সাদিক খান। লন্ডন থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী’র রিপোর্ট।

XS
SM
MD
LG