অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক


ইরানের পারমানবিক কর্মসূচি খর্ব করার লক্ষে ফ্রান্স এবং বিশ্বের অন্যান্য শক্তিশালী দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনায় ইরানের অবস্থান নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ফরাসী সরকার । জিনিভায় কুটনীতিকরা বলছেন যে ইরানি কর্মকর্তাদের সঙ্গে তিনদিনের এই আলোচনা পুর্নাঙ্গ কোন চুক্তি ছাড়াই শেষ হতে পা্রে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি, তার পারমানবিক বিবাদ নিস্পত্তির বিষয়ে জিনিভায় একটি চুক্তিতে পৌছুনোর এই ব্যতিক্রমি সুযোগ ছ টি প্রধান শক্তিশালী রাষ্ট্রগুলোর প্রতি না হারানোর আহ্বান জানিয়েছেন। ইরানের রাষ্ট্র পরিচালিত বার্তা সংস্থা ইরনা বলেছে সফরকারী জাপানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফুমিও কিশিদার সঙ্গে এক বৈঠকে শনিবার তেহরানে মি রুহানি এই মন্তব্য করেন।

জিনিভা বৈঠকে যোগদানকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী লরা ফাবিউ বলছেন যে ইরানের অবস্থান সম্পর্কে প্যারিস সরকার সন্তুষ্ট নয় এবং তারা বোকার চুক্তির অংশ হবে না।

ফ্রান্সের ইন্টার রেডিওতে ফাবিউ বলেন যে ইরাকে তার পশ্চিমাঞ্চলের শহরে প্লুটোনিয়াম উৎপাদনকারী চুল্লির কাজ স।তগিত করতে হবে। তিনি ইরানে পরিশোধিত ইউরেনিয়াম এর বিপুল মওজুত কমানোর ও আহ্বান জানান।

এটাও পরিস্কার নয় যে ফাবিউর মন্তব্যগুলো , ইরানের সঙ্গে আলোচনাকারী অন্য আর ৫ টি দেশের মতামতের কতখানি প্রতিফলন। কোন কোন কুটনীতিক বলছেন যে অন্যান্য দেশের চাইতে ফ্রান্স ইরানের ওপর একটু বেশি দাবি রাখছে।

ইরানের সংবাদ মাধ্যম পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদা জায়াদ জারিফকে উদ্ধৃত করে বলছে যে ছ ‘টি বৃহৎ শক্তির প্রতিনিধিদের মধ্যে মতপার্থক্য ছিল। জিনিভায় ইরানি প্রতিনিধিদলের নেতা জারিফ বলেন যে আলোচনার এই বর্তমান দফায় কোন সমঝোতা না হলে , আগামি সাত থেকে দশদিনের মধ্যে নতুন দফায় আবার আলোচনা হবে।
XS
SM
MD
LG