অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা রুদ্ধ প্রায় : হিউমান রাইটস


Human Rights Watch বলছে যে বাংলাদেশের বাক স্বাধীনতা এক নজিরবিহীন আক্রমণের শিকার। একদিকে চাপাতিধারী উগ্রপন্থি। অন্যদিকে অপরাধের গন্ধ খুঁজে বেড়ানো সরকার। উভয়ের মাঝে বাক স্বাধীনতা যেন জিম্মি। সংগঠনটির দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক পরিচালক মীনাক্ষ্মি গাঙ্গুলীর মতে, ধর্মনিরপেক্ষতাকে উগ্রপন্থিরা ইসলাম বিরোধী হিসেবে বিবেচনা করে। এ মাসের শুরুর দিকে ব্লগার নীলয় হত্যাকা-ের পর আল কায়েদার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আনসারুল ইসলাম বাংলা টিম নামে একটি উগ্রপন্থি দল দায় স্বীকার করে। তারা সতর্ক করে বলেছে, ভবিষ্যতেও তারা এ রকম ঘটনা ঘটাবে। এ সপ্তাহে ফেসবুকে এক মন্ত্রী ও আরেক রাজনীতিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ উত্থাপনের দায়ে সাংবাদিক প্রবীর শিকদারকে আটক করে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা। সরকারি কৌঁশলিরা বলছেন, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে মন্ত্রীর সুনাম ক্ষুণœ করেছেন প্রবীর শিকদার। প্রবীরকে ৩ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। ব্যাপক সমালোচনার মুখে বুধবার তাকে জামিন দিয়েছে ফরিদপুরের একটি আদালত। মঙ্গলবার গ্রেপ্তার হওয়া সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদকে ৩ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলেছে, বাংলাদেশের উচিত পন্থা পরিবর্তন করা। আন্তর্জাতিক মানদ- গ্রহণ করা। সাংবাদিকদের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা। এসব না করে কর্তৃপক্ষ যদি বাক স্বাধীনতার ওপর দমন-পীড়ন অব্যাহত রাখে তাহলে নিজেদের প্রাণ হারানোর ঝুঁকিতে থাকবেন সোচ্চার মানুষেরা।

XS
SM
MD
LG