অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাষ্ট্রদূত বার্নিকাট বলেন,বাংলাদেশের তৈরি পোশাক নিয়ে যেন কোনো নেতিবাচক মনোভাব তৈরি না হয়


বাংলাদেশের গার্মেন্টস শিল্প খাতের উদ্যোক্তারা বর্তমানের আয় আগামী ২০২১ সালের মধ্যে দ্বিগুণ অর্থাৎ ৫০ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করার লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারণ করেছেন। এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জন কিভাবে সম্ভব সে সম্পর্কে শনিবার ঢাকায় এক আলোচনা অনুষ্ঠানে ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট বলেন, বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প খাত নিয়ে যেন কোনো নেতিবাচক মনোভাবের তৈরির না হয় সেদিকে নজর দিকে হবে। রাষ্ট্রদূত বলেন, সব তৈরি পোশাক কারখানা সঠিক কাজ করলেও একটিও যদি এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম হয় তবে তা বড় খবর হয়ে উঠে। এটা যাতে না হতে পারে সে লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে সহায়তা দিতে প্রস্তুত। রাষ্ট্রদূত শুল্ক ও কোটামুক্ত বাজার সুবিধার ক্ষেত্রে বলেন, যারাই যুক্তরাষ্ট্রে এমন সুযোগ পায় তাদের সবাইকেই একটি আন্তর্জাতিক মানদন্ড বজায় রাখতে হয়। বাংলাদেশকেও তা করতে হবে। পোশাক কারখানা নিরাপত্তা এবং শ্রমিক ইস্যুতে নেতিবাচক পরিবেশ সৃষ্টির প্রবণতা পরিহারই হচ্ছে ওই ক্ষেত্রে পূর্ব শর্ত।আলোচনায় বিদ্যুৎ এবং গ্যাসের নিশ্চয়তা, পোশাকের মূল্য বৃদ্ধি, শ্রমিক নিরাপত্তাসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক মানদন্ড বজায় রাখা, ব্যাংক সুদের হার কমানো এবং রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখার কথাগুলো উঠে আসে।...ঢাকা থেকে আমীর খসরু

XS
SM
MD
LG