অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বর্তমান বিশ্বে পারমানবিক অস্ত্রের বর্ধিত হুমকি


আমরা হয়ত জানি যে আজ থেকে প্রায় একাত্তর বছর আগে ১৯৪৫ সালের ১৬ই মে যুক্তরাষ্ট্র নিউ মেক্সিকো অঙ্গরাজ্যে প্রথম পরমাণূ বোমার পরীক্ষা চালায় । তারপর একই বছর ৬ই অগাস্ট জাপানের হিরোশিমা এবং এর তিন দিন পর নাগাশাকিতে এই বোমা বিস্ফোরণের কারণে এর ব্যাপক ভয়াবহতা সম্পর্কে গোটা বিশ্ব শঙ্কিত বোধ করে। বিশ্বব্যাপী এই শঙ্কা সত্বেও আমরা লক্ষ্য করেছি পৃথিবীর অনেক দেশ পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা করেছে এবং নিজেদের পরমাণু শক্তি সম্পন্ন রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। পাশাপাশি এটাও লক্ষ্য করেছি আমরা সকলেই, যে পরমাণু অস্ত্রের বিস্তার রোধে ছয় দশকের ও বেশি সময় ধরে জাতিসংঘ সহ বিভিন্ন সংগঠন নানান রকম উদ্যোগ ও নিয়েছে। সৌভাগ্যবশত এই অস্ত্রের কোন বড় রকমের অপব্যবহার আমরা লক্ষ্য করিনি তবে দুর্ঘটনা ঘটেছে , রাশিয়ায় , জাপানে । এখন নতুন করে যে আশঙ্কা দেখা

দিয়েছে তা হলো রাষ্ট্রবহির্ভূত গোষ্ঠি বা stateless agent গুলোর হাতে এই পারমানবিক অস্ত্র প্রযুক্তি পড়লে কি হতে পারে। এ রকম উদ্বেগের মুখেই প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার উদ্যোগে সম্প্রতি ওয়াশিংটনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল পরমাণু অস্ত্রের নিরাপত্তা বিষয়ক চতুর্থ শীর্ষ বৈঠক।

এরই প্রেক্ষাপটে এ সব নিয়েই আমাদের শ্রোতাদের প্রশ্নের জবাব দেবেন প্যানেল সদস্যরা । আজ আপনাদের জিজ্ঞাসা আর আমাদের বিশেষজ্ঞ প্যানেলের জবাবের এই অনুষ্ঠানে বিষয় হচ্ছে বর্তমান বিশ্বে পারমানবিক অস্ত্রের বর্ধিত হুমকি । আজকের এই অনুষ্ঠানে শ্রোতাদের জবাব দেওয়ার জন্য টেলিসম্মিলনী লাইনে রয়েছেন ঢাকা থেকে চিন্তক গোষ্ঠি বাংলাদেশ ইন্টারপ্রাইজ ইনস্টিটিউটের সঙ্গ সম্পৃক্ত , নিরাপত্তা বিশ্লেষক , আবসরপ্রাপ্ত এয়ার কমোডর ইশফাক ইলাহি চৌধুরী, রয়েছেন কোলকাতা থেকে একজন প্রবীণ সাংবাদিক , দ্য হিন্দু পত্রিকার উত্তর-পুর্বাঞ্চলের সাবেক বিউরো চীফ বরুণ সেনগুপ্ত । আরো আছেন আমেরিকান পাবলিক ইউনিভার্সিটি সিস্টেমের সিকিউরাটি এন্ড গ্লোবাল স্টাডিজ বিভাগের অ্যাডজাঙ্কট ফ্যাকাল্টি ড সাঈদ ইফতিখার আহমেদ। ড আহমেদ বর্তমানে বাংলাদেশ সফর করছেন। তিনি আমাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন কুমিল্লা থেকে।

XS
SM
MD
LG