অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক


লেবাননের জঙ্গী সংগঠান হেজবোল্লা দলের নেতা প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন যে সিরিয়ায় তাদের যোদ্ধারা ততদিন অবস্থান করবে যতদিন সেখানে তাদের প্রয়োজন রয়েছে।

বৈরুতের দক্ষিণাঞ্চলে বিরল এক সভায় হাজার হাজার শিয়া সম্প্রদায়ের এক সমাবেশে বৃহস্পতিবার হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, হেজবোল্লা বাহিনী প্রতিবেশী দেশকে সাহায্য করেছে কারন বিদ্রোহীরা প্রেসিডেন্ট বাসার আল আসাদকে উতক্ষাত করতে চাইছে।

ইরান সিরিয়ার সরকার পক্ষকে সমর্থন করে।

এবছরের প্রথম থেকেই হেজবোল্লা বাহিনী প্রকাশ্যে লড়াইএ অংশ নিচ্ছে এবং লেবানন সীমান্ত সংলগ্ন একটি শহর পুনরায় দখল করে নিতে সরাসরি অংশ নেয়। দামেষ্কের আশে পাশেও তারা বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াইএ অংশ নিচ্ছে।

সিরিয়ার সহিংস পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে লেবাননের জনগণ দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পরেছে। বেশীর ভাগ সূন্নী মুসলমানরা সিরিয়ার বিরোধী দলগুলোকে সমর্থন করে আর অপর দিকে শিয়া মুসলমানরা প্রেসিডেন্ট বাসার আল আসাদ সরকারকে সমর্থন করছে।
XS
SM
MD
LG