অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলেছে, বাংলাদেশ সরকার আর্সেনিক পানিজনিত সমস্যা মোকাবেলার ক্ষেত্রে যথাযথ ভূমিকা পালনে ব্যর্থ হয়েছে


In this April 5, 2016 photo, a Bangladeshi woman collects arsenic-tainted water from a tube-well in Khirdasdi village, outskirts of Dhaka, Bangladesh.

In this April 5, 2016 photo, a Bangladeshi woman collects arsenic-tainted water from a tube-well in Khirdasdi village, outskirts of Dhaka, Bangladesh.

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বুধবার প্রকাশিত এক রিপোর্টে বলেছে, বাংলাদেশ সরকার আর্সেনিক পানিজনিত সমস্যা মোকাবেলার ক্ষেত্রে যথাযথ ভূমিকা পালনে ব্যর্থ হয়েছে। দেশের, বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলের আর্সেনিকযুক্ত পানি সমস্যা ২০ বছর আগে যে অবস্থায় ছিল, এখনো সেই অবস্থায়ই রয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়, প্রতিবছর বাংলাদেশে ৪৩ হাজারের মতো মানুষ আর্সেনিক জনিত রোগে মারা যান। আর আর্সেনিকযুক্ত পানি পান করছেন ২ কোটিরও বেশি মানুষ। ‘স্বজনপ্রীতি এবং অবহেলা : বাংলাদেশে গ্রামাঞ্চলের খাবার পানিতে আর্সেনিক প্রতিরোধে ব্যর্থ প্রচেষ্টা’ শীর্ষক ওই রিপোর্টে বলা হয়, নিরাপদ বা আর্সেনিকমুক্ত পানির জন্য সরকারের পক্ষ থেকে গভীর নলকূপ দেয়া হয়। কিন্তু নলকূপ পাওয়ার ক্ষেত্রে বা বসানোর ক্ষেত্রে রাজনৈতিক প্রভাব কাজ করে। সংসদ সদস্য বা উপজেলা চেয়ারম্যান অথবা রাজনীতিকদের এক্ষেত্রে বিশেষ প্রভাব থাকে। রিপোর্টে আরও বলা হয়, সরকারের দিক থেকে এমন একটা ধারণা পোষণ করা হয় যে, অনেক কাজ হয়ে গেছে। কিন্তু সরকার এবং আন্তর্জাতিক দাতারা যদি অধিকতর সক্রিয়তা না দেখান, তাহলে লক্ষ লক্ষ মানুষ এই আর্সেনিক জনিত রোগেই মারা যাবেন বলে আশংকা প্রকাশ করেছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

ঢাকা থেকে আমীর খসরুর রিপোর্ট।

XS
SM
MD
LG