অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

উত্তরপ্রদেশের মথুরায় পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে চব্বিশ জন নিহত


ভারতের এলাহাবাদ হাই কোর্টের নির্দেশে বেআইনি দখলদারদের উচ্ছেদ করতে গেলে উত্তরপ্রদেশের মথুরায় পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত চব্বিশ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন চল্লিশ জন।

মৃতদের মধ্যে মথুরার পুলিশ সুপার ও এক পুলিশ কর্মী রয়েছেন। বাকী বাইশ জন বিক্ষোভকারী। উদ্ধার হয়েছে প্রচুর অস্ত্র। মৃত পুলিশকর্মীদের পরিবারপিছু ২০লাখ টাকা করে সাহায্য ঘোষণা করেছে উত্তরপ্রদেশ সরকার।

প্রসংগত বলা যেতে পারে, এলাহাবাদ হাইকোর্টের নির্দেশে গতকাল জওহরবাগ এলাকার দখল হয়ে যাওয়া জমি থেকে দখলদারদের উচ্ছেদ শুরু করে পুলিশ। কিন্তু ‘আজাদ ভারত বিধিক বৈচারিক ক্রান্তি সত্যাগ্রহী’ নামে যে গোষ্ঠী জমি দখল করে রেখেছিল, তারা সরে যেতে অস্বীকার করে।

তারা পুলিশের ওপর প্রথমে পাথর ছোঁড়ে, তারপর গুলি ছুঁড়তে শুরু করে। ছোঁড়া হয় হ্যান্ড গ্রেনেড, বোমা ইত্যাদি। ফাটানো হয় একের পর এক এলপিজি সিলিন্ডারও। ফলে বেশ কয়েকটি ঘরে আগুন ধরে যায়। লাঠি চার্জ ও কাঁদানে গ্যাসে বিক্ষোভকারীরা পিছু না হটায় গুলি ছোঁড়ে পুলিশও।

বিক্ষোভকারীদের গুলিতে প্রাণ হারান এসপি (সিটি) মুকুল দ্বিবেদী ও স্থানীয় ফারাহ পুলিশ স্টেশনের কর্মী সন্তোষ কুমার।

বিক্ষোভকারীদের নেতা রামবৃক্ষ যাদবকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আটক করা হয়েছে দুশোর বেশি বিক্ষোভকারীকে।
উল্লেখ করা যেতে পারে দু'বছরের বেশি সময় ধরে বাবা জয় গুরুদেব নামে একটি সংস্থার কর্মীরা ‘আজাদ ভারত বিধিক বৈচারিক ক্রান্তি সত্যাগ্রহী’ নামে দল গঠন করে ধর্মরক্ষার ছুতোয় জওহরবাগের কয়েকশো একর জমি দখল করে রেখেছিল। এক জনস্বার্থ মামলার জেরে হাইকোর্টের রায় হাতে নিয়ে পুলিশ তাদের উচ্ছেদ করতে গেলে এই ঘটনা ঘটে। কলকাতা থেকে পরমাশিষ ঘোষ রায়।

XS
SM
MD
LG