অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতের অভ্যন্তরে প্রবল দাবি উঠেছিল পাকিস্তানী জঙ্গীদের বিরুদ্ধে একটা কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য। ভারতীয় সেনারাও চঞ্চল হয়ে উঠছিল। তবু পাল্টা সামরিক অভিযানে নামা মানেই সেটা পুরোদস্তুর যুদ্ধে ছড়িয়ে পড়বার ঝুঁকি থেকেই যায়।

সম্ভবত এই আশঙ্কাতেই ২০০১ সালে জঙ্গীদের ভারতীয় সংসদ আক্রমণের পরে সীমান্ত জুড়ে সেনা সমাবেশ করেও যুদ্ধে যাননি বিজেপি'র তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী। কিন্তু নরেন্দ্র মোদি ঝুঁকি নেওয়ার সেই সাহস দেখাতে পারলেন।

এই বাধ্যবাধকতা ছাড়াও আরও একটি রাজনৈতিক অঙ্ক এই সিদ্ধান্তের পেছনে লুকিয়ে থাকতে পারে বলে রাজনৈতিক মহলের দাবি। বিহারে বিধানসভা নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয় ঘটেছে বিজেপি'র। কয়েক মাস পরেই উত্তর প্রদেশ, কর্নাটক আর গুজরাটে নির্বাচন। সামরিক তৎপরতায় মোদির নিজের ভাবমূর্তি তো উজ্জ্বল হয়েছেই, বেড়েছে তাঁর সরকারের সুনামও। এর একটা সুফল নির্বাচনের ফলাফলে আশা করতেই তো পারে বিজেপি। কলকাতা থেকে গৌতম গুপ্ত।

XS
SM
MD
LG