অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ঝাড়খণ্ডে মাওবাদী দমন অভিযানে মহিলা কম্যান্ডো


ভারতে এই প্রথমবার পশ্চিমবঙ্গের পার্শ্ববর্তী রাজ্য ঝাড়খণ্ডে মাওবাদী দমন অভিযানে মহিলা কম্যান্ডোদের নামাল সিআরপিএফ। জানা গেছে, বাহিনীর ২৩২ ব্যাটালিয়নের অন্তর্গত ডেল্টা কোম্পানির ১৩৫ জন মহিলা কম্যান্ডো রাঁচির অদূরে মাও অধ্যুষিত খুন্তি অঞ্চলে অভিযান চালাচ্ছে। সিআরপিএফ এর ১৩৩ ব্যাটালিয়নের তদারকিতে এই কম্যান্ডোরা অভিযান চালাচ্ছে।

ঝাড়খণ্ডে বাহিনীর আইজি সঞ্জয় লথকর জানান, গত ১৭ অক্টোবর মহিলা কম্যান্ডোদের একটি কোম্পানিকে বাহিনীকে প্রথমবার অন্তর্ভুক্ত করা হয়। তাঁদের মূল দায়িত্ব হল মাওবাদী দমন অভিযানে অংশ নেওয়া। তাঁরাই এখন অভিযান শুরু করেছে।

অন্যদিকে, ১৩৩ ব্যাটালিয়নের কম্যান্ডান্ট নীরজ পাণ্ডে জানিয়েছেন, এই মহিলারা অত্যন্ত সাহসী এবং প্রথমবার তাঁরা রাঁচির আশাপাশের অঞ্চলে মাও দমন অভিযানে অংশ নিচ্ছে। তিনি জানান, মাওবাদী অভিযানের কথা মাথায় রেখে এই মহিলা কম্যান্ডোদের সবচেয়ে ভাল প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে নীরজ পান্ডে জানিয়েছেন, প্রশিক্ষণের সময় পুরুষ জওয়ানদের সঙ্গে সমানতালে পাল্লা দিয়েছে এই মহিলারা। তাঁরা কারও থেকে কোনও অংশে কম নন। নীরজ পান্ডে মনে করেন, মহিলা কম্যান্ডো অন্তর্ভুক্ত হওয়ার ফলে বাহিনীর শক্তি দ্বিগুণ বেড়েছে।

বাহিনীর ডিআইজি গিরি প্রসাদ জানান, মহিলা মাওবাদীদের বাগে আনতে মহিলা কম্যান্ডো গঠন করার প্রয়োজন হয়ে পড়েছিল। তাঁর দাবি, এই মহিলাদের যে কোনও পরিস্থিতি মোকাবিলা করার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। ফলে, তাঁরা যে কোনও মাও সমস্যার সম্মুখীন হতে প্রস্তুত।

ডেল্টা কোম্পানির কম্যান্ডার শক্তি তিরকে জানান, তিনি দেশের সেবা করতে চেয়েছিলেন। তাই এখানে এসেছেন। সাহসিনী বলেন, মাও প্রভাবকে সম্পূর্ণ নির্মূল করতে হবে। এটা শুধু মানুষের জন্য ক্ষতিকর নয়, এই সমস্যার জন্য দেশের অগ্রগতি হচ্ছে না। কলকাতা থেকে পরমাশিষ ঘোষ রায়।

XS
SM
MD
LG