অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়ায় এই সবে সংসদ নির্বাচন হয়ে গেলো - আগামীতে প্রেসিডেণ্ট নির্বাচন হবে ।

  • রোকেয়া হায়দার

রাশিয়ায় এই সবে সংসদ নির্বাচন হয়ে গেলো - আগামীতে প্রেসিডেণ্ট নির্বাচন হবে ।

রাশিয়ায় এই সবে সংসদ নির্বাচন হয়ে গেলো - আগামীতে প্রেসিডেণ্ট নির্বাচন হবে ।

রাশিয়ায় পার্লামেন্ট নির্বাচন হয়ে গেল । আগামীতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হবে । এবং বিশ্লেষকরা অনেকেই মনে করেন, বর্তমানে রাশিয়ায় গনতন্ত্রকামী প্রতিবাদ বিক্ষোভ থেকে রাশিয়ার রাজনীতিতে হাওয়া বদলের আভাষ পাওয়া যাচ্ছে ।

রাশিয়া পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছেন মেরীল্যাণ্ডের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগে ভিসিটিং প্রফেসার ডঃ রবার্ট ফ্রিডম্যান ।

তার মন্তব্য ভিত্তিক রিপোর্ট আপনাদের শোনাচ্ছেন রোকেয়া হায়দার

রাশিয়ার পার্লামেন্ট নির্বাচনের স্বচ্ছতা তা সুষ্ঠু ছিল কিনা – এ্সব বিষয়ে প্রশ্ন উঠেছে । অনেকেই ফলাফল সহজে গ্রহণ করছেন না । এ বিষয়ে জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিটিং প্রফেসার ডঃ রবার্ট ও ফ্রিডম্যান বললেন,

‘সংসদ নির্বাচন সম্পর্কে ব্যাপকভাবে বলা হচ্ছে কারচুপি হয়েছে , যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারী ক্লিন্টনসহ বিভিন্ন স্তরে ব্যাপক প্রতিবাদ জানানো হয় । আমি যেটা লক্ষ্যণীয় মনে করি যে কারচুপি সত্ত্বেও, ক্ষমতাসীন পার্টি ইউনাইটেড রাশিয়া, ৬৩ শতাংশ থেকে কমে ৪৯ শতাংশ ভোট পেয়েছে । কম্যুনিষ্ট পার্টি পেয়েছে ১১ থেকে ১৯ শতাংশ ভোট পেয়েছে । এ থেকে স্পষ্ট বোঝা যায় যে এই ফলাফল বর্তমান ব্যবস্থা এবং মেদভেদেভ ও পুটিনের বিরুদ্ধে একটা প্রতিবাদ । রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে যে খবর প্রচার করা হয় । ২৫ হাজার মানুষের প্রতিবাদ সমাবেশ মস্কোর জন্য বিরাট ব্যাপার’ ।

২৪শে ডিসেম্বর মেগা প্রটেস্ট হবে বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশের কথা বলা হচ্ছে । ডঃ ফ্রিডম্যান বললেন ঃ

‘এটি খুবই লক্ষ্যণীয় বিষয় হবে । বিশাল প্রতিবাদ থেকে বোঝা যাবে যে মিঃ পুটিন দূর্বল হয়ে পড়ছেন । পরিস্থিতি এখান থেকে কোথায় মোড় নেবে । তিনি জাতীয়বাদের কথা বলেছেন । তিনি ক্ষেপণাসত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার কথা বলেছেন । হয়তো এবার তিনি সমাজ কল্যাণের কথা বলবেন । শিক্ষা সমাজ কল্যাণ খাতে ব্যয় করবেন’ ।

পশ্চিমী সংবাদ মাধ্যমে বলা হচ্ছে মিঃ পুটিন এখন লোকজনের বক্তব্য শুনছেন তাদের বক্তব্যের দিকে মন দিচ্ছেন । এ কথা কেন বলা হচ্ছে ? এ প্রশ্নের জবাবে ডঃ ফ্রিডম্যান বলেন, ‘আমি ঠিক নিশ্চিত নই । তিনি বলছেন যে, তিনি শুনছেন । আসল বিষয়টি হচ্ছে তিনি কি করছেন । কি ধরণের নীতিগত পরিবর্তন আসছে । তিনি হয়তো আরও কঠোর নীতি গ্রহণ করবেন, অথবা তিনি হয়তো বলবেন, আমি লোকজনের বক্তব্য শুনছি তারা পরিবর্তন চাইছেন । মেদভেদেভ যেমন বলেছেন, তিনি নির্বাচন প্রক্রিয়া তদন্ত করে দেখবেন । নির্বাচনে দেখা গেছে যে ব্যালট বাক্স ভরে দেওয়া হয় । আমি ধারণা করছি যে সেই কমিশন ৪ঠা মার্চের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পরই ফলাফল জানাবে ।

এই ছিল রাশিয়া সম্পর্কে ডঃ ফ্রিডম্যানের বক্তব্য ।

XS
SM
MD
LG