অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

প্রযুক্তির সুবিধে সন্ত্রাসীরা নিতে পারে , কিন্তু সন্ত্রাসরোধী অভিযানে প্রযুক্তি দিয়েছে বাড়তি সুবিধা

  • আনিস অহমেদ

আজ ১১ই সেপ্টেম্বর । আজ থেকে ঠিক এগারো বছর আগে এই দিনে যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখন্ডের ভেতরে যে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছিল , শান্তিকমী মানুষের ওপর যে আক্রমণ হয়েছিল , সেই হত্যাযজ্ঞের সঙ্গে জড়িত হয়ত অনেকেই এখন নেই। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে বিশ্ব থেকে সন্ত্রাসবাদ কি সম্পুর্ণ নির্মূল হয়েছে। আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের স্বরূপ নিয়েই যুক্তরাষ্ট্রের ইলিনয় বিশ্ববিদ্যালয়ের Government & Politics বিভাগের প্রধান , অধ্যাপক আলী রীয়াজ ভয়েস অফ আমেরিকার বাংলা বিভাগকে বলেন যে প্রযুক্তির অগ্রগতিতে বিশেষ করে যোগাযোগ পদ্ধতির আধুনিকায়ন মূলত এখনকার সময়ে সন্ত্রাসবাদিদের হাতে বাড়তি সুবিধে দিয়েছে বিশেষত যারা দূর্গম এলাকায় রয়েছে। তবে তিনি এ কথা ও বলেন যে প্রযুক্তির এই আধূনিকীকরণের সুবিধে সন্ত্রাস-বিরোধী অভিযানেও বিশেষ সুবিধে দিচ্ছে। অধ্যাপক রীয়াজ, বলেন যে যেমন ড্রোন বিমানের সাহয্যে সন্ত্রাসীদের লক্ষ্যবস্তুর ওপর অভিযান পরিচালনা এখন সহজ হয়েছে।

আল ক্বায়দা ভিন্ন নামে এবং আঞ্চলিক পর্যাযে হয়ত সক্রিয় আছে কিন্তু কেন্দ্রীয় নের্তৃত্বের কাঠামোতে ভাঙ্গন ধরায় আল ক্বায়দা এখন বড়জোর একটি আদর্শে পরিণত হয়েছে তবে এই আদর্শ আঞ্চলিক পর্যায়ে লোকজনের কাছে খুব একটা গ্রহণযোগ্য নয়।

XS
SM
MD
LG