অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হোসনে মুবারকের পদত্যাগ,আন্তর্জাতিক আঙ্গিনায় একটি যুগান্তকারী ঘটনা: অধ্যাপক শহীদুজ্জামান

  • আনিস আহমেদ

হোসনে মুবারকের পদত্যাগ,আন্তর্জাতিক আঙ্গিনায় একটি যুগান্তকারী ঘটনা: অধ্যাপক শহীদুজ্জামান

হোসনে মুবারকের পদত্যাগ,আন্তর্জাতিক আঙ্গিনায় একটি যুগান্তকারী ঘটনা: অধ্যাপক শহীদুজ্জামান

প্রচন্ড গণ আন্দোলনের মুখে মিশরের প্রেসিডেন্ট হোসনে মুবারক গতকাল পদত্যাগ করেছেন । তাঁর এই পদত্যাগের অভ্যন্তরীন আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক প্রতিক্রিয়া নিয়েই ভয়েস অফ আমেরিকার বাংলা বিভাগের সঙ্গে কথা বলেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক শহীদুজ্জামান। তিনি বলেন যে মিশরের যে গনবিস্ফোরণের ফলে এই পরিবর্তন আসলো , সেই বিস্ফোরণ মিশরে গণতন্ত্রিক রূপান্তর আনবে। তিনি মনে করেন যে আধুনিক প্রযুক্তির প্রভাবে সংগঠিত এই গণ আন্দোলন মিশরকে একটি আধুনিক উদারপন্থি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে পরিণত করতে পারে।

অধ্যাপক শহীদুজ্জামান অবশ্য সেখানে সেনা নের্তৃত্বের ভুমিকা সম্পর্কে খানিকটা সংশয় প্রকাশ করেন। তিনি বলেন যে ১৯৫২ সাল থেকে সেখানে অধিষ্ঠিত সেনাবাহিনী গণতান্ত্রিক সংস্কার সাধনের প্রতিশ্রুতি কতটা পূরণ করতে পারবে সে নিয়ে তিনি সন্দিহান। তবে তিনি এটা ও স্বীকার করেন যে জনগণ, সেনাবাহিনীর সাধারণ সৈন্যদের সমর্থন করেছে এবং সাধারণ সৈন্যরাও তাদের ঐ আন্দোলনের প্রতি অকুন্ঠ সমর্থন জানিয়েছে। তবে সেনাবাহিনীর উচু পর্যায়ের কর্মকর্তারা গণতন্ত্রের প্রতি কতখানি সহায়ক হবেন সেটা পরিস্কার নয়। তবে তিনি মনে করেন যে জনগণের চাপেই পড়ে হোক কিংবা যুক্তরাস্ট্রের উদ্যোগের কারণেই হোক সেখানে গণতন্ত্র ফিরে আসবে।

এই সাক্ষাৎকারে অধ্যাপক শহীদুজ্জামান , ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার একজন ভাষ্যকারের সঙ্গে এ ব্যাপারে দ্বিমত প্রকাশ করেন যে মুবারকের প্রস্থানের পর , মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্টের জন্যে এক ধরণের রাজনৈতিক নের্তৃত্বের শূণ্যতা সৃষ্টি হয়েছে। তিনি মনে করেন এটা সনাতন ধর্মী বিশ্লেষণ। তিনি বরঞ্চ প্রাক্তন ডেপুটি সেক্রেটারী অফ স্টেট নিকোলাস বার্নস এর আশাবাদের একমত প্রকাশ করেন । অধ্যাপক শহীদুজ্জামান ইসরাইলের সংশয় এবং ইরানের উল্লাসের বিষয় ও বিশ্লেষণ করেন।

XS
SM
MD
LG