অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়ার গণতান্ত্রিক আন্দোলন ভেতর থেকে হওয়া উচিত: অধ্যাপক আমেনা মহসিন

  • আনিস অহমেদ

সিরিয়ায় হিংসা হানাহানির অবসানতো ঘটেনিই ক্রমশই তা আরও সম্প্রসারিত হচ্ছে। সিরিয়ান অবজারভেটারী ফর হিউমান রাইটস বলছে যে হিংসা হানাহানিতে আজও সেখানে অন্তত ৩৭০ জন নিহত হয়েছে। সিরিয়ার ক্রম অবনতিশীল পরিস্থিতি এবং এ থেকে বেরিয়ে আসার পথ নিয়ে , ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক আমেনা মহসিন ভয়েস অফ আমেরিকাকে বলেন যে প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের পদত্যাগ ছাড়া সিরিয়ায় এই সহিংসতা কমবে না। তিনি বলেন যে আপাত দৃষ্টিতে সিরিয়ার সংবিধান সংশোধন করা হয়েছে বটে কিন্তু ক্ষমতা সেখানে কেন্দ্রীভূত হয়ে আছে , সেখানে প্রায় ১৮টা নিরাপত্তা বাহিনী আছে , এরা অদৃশ্য ক্ষমতার অধিকারী হয়ে আছে। ব্যক্তিবিশেষের আধিপত্য কমেনি। যতক্ষণ পর্যন্ত সেখানে গণতন্ত্র

তিনি মনে করেন যে মিশর এবং লিবিয়ায় ও একই রকম সমস্যা ছিল । লিবিয়া মিশর সব জায়গায় দেখা যাচ্ছিল যে শু ধু সেনাবাহিনী নয় , অন্য ভাবে সামরিকীকরণ চলছিল। আর সিরিয়ায়ও পরিস্থিতিটা ভিন্ন নয়। অধ্যাপক আমেনা মহসিন আরও বলেন যে সিরিয়ার আন্দোলন শুধু বাইরে থেকে করলেই চলবে না । ভেতরে যে সব গোষ্ঠির রয়েছে , তাদের মধ্যে ও সমন্বয় সাধন করার প্রয়োজন রয়েছে ।

XS
SM
MD
LG