অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসন বিল সম্পর্কে সৈয়দ মোহাম্মদউল্লাহর বিশ্লেষণ



যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বৈধ কাগজ-বিহিন অভিবাসিদেরকে বৈধ করার উপায় বের করার লক্ষ্যে বহু প্রতীক্ষিত ‘সমন্বিত অভিবাসন সংস্কার আইন’ বিলটি, ৬৮-৩২ ভোটে সেনেটে গৃহীত হয়েছে। তবে আইন হত্তয়ার প্রক্রিয়ায় বিলটি নিয়ে নিম্ন প্রতিনিধি পরিষদ বা কংগ্রেসেও বিতর্ক এবং ভোটাভুটি হতে হবে। এই বিলের ভবিষ্যৎ কি হতে পারে তা নিয়ে ভয়েস অফ আমেরিকার বাংলা বিভাগের সঙ্গে কথা বলেছেন প্রবীন সাংবাদিক ত্ত সংবাদ বিশ্লেষক সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ। সাক্ষাৎকারটি গ্রহণ করেন সেলিম হোসেন। বৃহস্পতিবার সেনেটে গ্রহণ করা হয়েছে ‘সমন্বিত অভিবাসন সংস্কার আইন’ বিল। ডেমোক্র্যাট দলীয় সদস্যদের দ্বারা উত্থাপিত হলেত্ও সেনেটে এক তৃতীয়াংশ রিপাবলিকান সেনেটরও বিলের পক্ষে ভোট দেন।

সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ এ প্রসংগে বলেন এই বিলের সমর্থকরা শক্তভাবে আশা করছেন এবার বিলটি আইন আকারে পাশ হবে। তবে যেহেতু প্রতিনিধি পরিষদ রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত এবং রিপাবলিকানরাও অভিবাসন সংস্কার বিষয়ক একটি বিল প্রস্তাব আকারে তৈরী রেখেছেন, তারা চেষ্টা করবেন সেনেটে গৃহীত ‘সমন্বিত অভিবাসন সংস্কার আইন’ পাশ না করে তাদের প্রস্তাবের পক্ষে কাজ করা। উপরন্তু প্রতিনিধি পরিষদের স্পীকার জন বোনার ঘোষণাই দিয়েছেন যে তিনি সেনেটে পাশ হত্তয়া বিল বিবেচনাই করবেন না। তাই এই বিলের ভবিষ্যৎ সাফল্য নিয়ে আশংকা রয়েছে। দুই দলের দুই বিল একসাথে করে উভয় বিল থেকে কিছু কাটছাঁট করে নতুন একটি বিল হতে পারে এমন সম্ভাবনার কথাও উল্লেখ করেন তিনি।

‘সমন্বিত অভিবাসন সংস্কার আইন’ পাশ হলে বাংলাদেশীদের কতোটা উপকার হবে এমন প্রশ্নে তিনি বলেন বাংলাদেশী যারা বৈধ কাগজপত্র বিহীন আছেন তারা অবশ্যই উপকৃত হবে। তবে অন্যান্য অভিবাসী সম্প্রদায়ের তুলনায় তাদের সংখ্যা খুব একটা বেশী নয়।

কিছুদিন আগে একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে অবৈধ অভিবাসিদেরকে বৈধতা দিলে যুক্তরাষ্ট্রের জিডিপি বাড়বে, নতুন চাকুরীর সংস্থান হবে, সামগ্রিক অর্থনৈতক উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে। তার পরত্ত এর বিরোধীতা কেনো হবে, এই প্রশ্নে সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ বলেন, প্রেসিডেন্ট রেগ্যানের আমলে একবার সাধারন ক্ষমা ঘোষণা করে বিপুল সংখ্যক অবৈধ অভিবাসিকে বৈধ করা হয়েছিল। এভাবে ২০-২৫ বছর পর পর যদি অবৈধ অভিবাসিদেরকে বৈধ করা হয় তবে বিভিন্ন দেশ থেকে অভিবাসিরা যে কোন উপায়ে যুক্তরাষ্ট্রে আসার চেষ্টা করবে। কারণ তারা আশা করবে কোন না কোন দিন তারা বৈধতা পাবে। তিনি আরো বলেন শ্বেতাংগ আমেরিকানরা কৃষ্ণাংগ আমেরিকানদের ক্রমবর্ধমান সংখ্যায় উদ্বিগ্ন। তার ত্তপর এই বিল পাশ হলে কৃষ্ণাংগদের পাশাপাশি ল্যাটিনোদের সংখ্যা বেড়ে যাবে এবং যুক্তরাষ্ট্র ল্যাটিনো প্রধান দেশ হয়ে যাবে। ফলে তারা এই বিল পাশের বিরোধীতা করবে।

XS
SM
MD
LG