অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়ার শান্তি আলোচনা দীর্ঘায়িত হতে পারে : অধ্যাপক তারেক শামসুর রেহমান


সিরিয়ায় বিবদমান পক্ষগুলোর মধ্যে শান্তি আলোচনা চূড়ান্ত ভাবে শুরু করার আগে , জাতিসংঘ , আলোচকদের পরস্পরকে কাছাকাছি আনার চেষ্টা হিসেবে আজ একটি প্রাথমিক বৈঠকের আয়োজন করেছে । কিন্তু এ নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়ে গেছে। অন্যদিকে সৌদি আরবের একটি শিয়া মসজিদে বোমা বিস্ফোরণে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত দু জন। এ সব প্রসঙ্গের দিকেই আলোকপাত করেছেন জাহাঙ্গিরগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক , ড তারেক শামসুর রেহমান , ভয়েস অফ আমেরিকার আনিস আহমেদের সঙ্গে টেলিফোন আলাপে।

ড তারেক শামসুর রেহমান বলেন যে আজেকর এই Proximity Meeting অর্থাৎ বিবদমান পক্ষগুলোকে একত্রে আনার এই প্রয়াসে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে মূলত একটি কারণে যে সিরিয়া বিরোধী ঠিক কোন পক্ষ এই শান্তি আলোচনায় অংশ নেবে। এটা এখনও পরিস্কার নয় যে আসাদ বিরোধী কিংবা আই এস বিরোধীদের পক্ষ থেকে কারা এই আলোচনায় অংশ নিচ্ছেন। তিনি বলেন কুর্দিদের ছাড়া সিরিয়ার ব্যাপারে কোন রকম সমঝোতায় পৌঁছুনো সম্ভব নয়। তিনি মনে করছেন যে এই আলোচনা দীর্ঘ স্থায়ী হবে কিন্তু তিনি একই সঙ্গে আশাবাদী যে এক পর্যায়ে এই জট খুলতে সাহায্য করবে।

সৌদি আরবের একটি শিয়া মসজিদে বোমা বিস্ফোরণ যারা ঘটিয়েছে তাদের সঙ্গে সৌদি আরবের আদর্শিক মিল বা অমিল প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে অধ্যাপক তারেক শামুসর রেহমান বলেন শিয়া –সুন্নি দ্বন্দ্বের একটা ঐতিহাসিক ভিত্তি আছে এবং শিয়া প্রভাবাধীন একটা সেন্টিমেন্ট সৌদি আরবে রয়েছে , বিশেষত সেখানকার শিয়া নেতার মৃত্যুদন্ড কার্যকর হবার পর এই অনুভুতি আরও তীব্র হয়েছে। এর ফলশ্রুতিতেই এ রকম ঘটনা ঘটছে বলে তাঁর ধারণা। তিনি সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের প্রসঙ্গ ও উত্থাপন করেন এবং বলেন যে ইরান এই সামরিক জোটের ব্যাপারে তটস্থ। কাজেই এ ধরণের হামলার ব্যাপারে একের সঙ্গে অপরের সম্পর্ক রয়েছে।


XS
SM
MD
LG