অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আজ শনিবারও ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে উত্তেজনা অব্যাহত ছিল এবং ইরানী প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানী ইয়েমেনে হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সৌদি নের্তৃত্বাধীন বিমান অভিযানের কড়া সমালোচনা করেছেন।

ইরানের জাতীয় সেনাবাহিনী দিবস উপলক্ষে দেওয়া ভাষণে সৌদি আরবকে লক্ষ্য করে রুহানী বলেন আপনারা এই অঞ্চলের জনগণের মনে ঘৃণার বীজ বপন করেছেন এবং আজ হোক কাল হোক আপনারা এর ফলাফল দেখতে পাবেন।

এর আগে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাজ আলী খামেনি সৌদি নের্তৃত্বাধীন এই অভিযানকে তাঁর কথায় “ গণহত্যা “ এবং অপরাধ” বলে আখ্যায়িত করেন। মনে করা হচেছ যে ইরান হুথি বিদ্রোহীদের সামরিক ও আর্থিক সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে , তবে ইরান এই সহযোগিতার কথা অস্বীকার করছে।

শুক্রবার ও সৌদি আরব এই অভিযান অব্যাহত রেখেছিল। এ দিকে জাতিসংঘ ইয়েমেনে মানবিক সাহায্য বাবদ যে সাতাশ কোটি চল্লিশ লক্ষ ডলার দেয়ার আহ্বান জানিয়েছিল , তার পুরোটাই দিতে সৌদি আরব প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। জাতিসংঘ বলছে যে ইয়েমেনের সংঘাতে কমপক্ষে দেড় লক্ষ লোক বাস্তুচ্যুত হয়েছে এবং তিন সপ্তা আগে সেখানে সৌদি নের্তৃত্বে বিমান অভিযান শুরু হবার পর থেকে ৭০০ ‘র ও বেশি লোক প্রাণ হারিয়েছে।

যুক্তরাষেট্র সৌদি রাষ্ট্রদূত আব্দেল বিন আহমেদ আল জুবেইরকে উদ্ধৃত করে এক সরকারী বিবৃতিতে বলা হয় যে অর্থ প্রদানের এই প্রতিশ্রুতি ভ্রাতৃতুল্য ইয়েমেনী জনগণকে সাহায্য করার সৌদি সংকলেপরই বহিপ্রকাশ।

XS
SM
MD
LG