অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সবাই মিলেজুলে,একত্রিতভাবে একটা সরকার গঠনই এখন ইরাকের জন্যে সবচেয়ে বড়ো চ্যালেঞ্জ-জন কেরী

  • VOA Editor

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রী জন কেরী বলছেন-সবাই মিলেজুলে,একত্রিতভাবে একটা সরকার গঠনই এখন ইরাকের জন্যে সবচেয়ে বড়ো চ্যালেঞ্জ।সূন্নি-ইসলামপন্থী জঙ্গিদের মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা-পরামর্শ,কথাবার্তা তিনি চালিয়ে যাচ্ছেন লাগাতার।
আজ মঙ্গলবার,ইরবিলে,ইরাকের উত্তরপূর্বাঞ্চলে,স্বায়ত্বশাসিত কুর্দি এলাকার প্রেসিডেন্ট মাসূদ বারযানির সঙ্গে দেখা হয় – কথা হয় তাঁর।ইরাক এখন একটা নতুন বাস্তবতার মুখোমুখি এসে দাঁড়িয়েছে বলে মন্তব্য করেন বারযানি। বলেন,এই যে সংকট আমরা দেখলাম,এরই ফয়সলা চায় কুর্দিরা।
কুর্দি বাহিনী তেল-সমৃদ্ধ কার্কুকের নিয়ন্ত্রণ কব্জা করেছে।ইসলামিক স্টেইট অফ ইরাক এ্যান্ড দ্য লেভান্ট বা পূর্ব ভূমধ্য সাগরবর্তি এলাকার ISIL জঙ্গিরা এই হালে তাদের চড়াও অভিযানে যেসব এলাকা দখল করেছে তারই একটি হলো কার্কুক।
পররাষ্ট্র মন্ত্রী কেরি বলেন- ইরাক এখন একটা সংকট কালের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে।বলেন- ISIL-এর সামনে একটা অবরোধ খাড়া করতে মদত জোগানোয় এবং ইরাকের আরক্ষা বাহিনীকে কিছুটা সহায়তা প্রদানে এখানকার কুর্দি এলাকায় বিভিন্ন বাহিনীর মধ্যে নিরাপত্তা সহযোগিতা গড়ে তোলা এখন বাস্তবিকই জরূরী হয়ে পড়েছে।
ইরাকের কুর্দিদেরকে সংশ্লিষ্ট করার গুরুত্বের ওপর জোর দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র দফতরের পদস্থ এক কর্তা ব্যক্তি।বলেন-রাজনৈতিক প্রক্রিয়া থেকে তাদের হঠে যাওয়া প্রভূত নেতিবাচক প্রবণতার জন্ম দেবে।
জাতিসংঘ বলেছে-এই জুনেই ইরাকে প্রাণ হারিয়েছে সহস্রাধিক মানুষ- যার বেশির ভাগই অসামরিক লোক।২ হাজার ৮ সালের পর এমোন সহিংসতা আর দেখা যায়নি।মে’র শেষ অবধি মৃত্যু হয়েছে সাড়ে চার হাজার মানুষের।
XS
SM
MD
LG