অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার মায়াপুর এবং কলকাতার মাদার হাউজের মতো যে সমস্ত জায়গায় বিদেশি পর্যটকের আসা যাওয়া আছে সেইখানেই আত্মঘাতী হামলা চালানোর জন্য ইসলামিক স্টেট(আইএস)জঙ্গি মহম্মদ মুসিরউদ্দিন ওরফে মুসাকে নির্দেশ দিয়েছিল তাদের সংগঠনের উচ্চ নেতৃত্ব। এই নির্দেশ এসেছিল এই উপমহাদেশে আইএস সংগঠনের প্রধান শফি আরমার ওরফে ইউসুফ আল হিন্দি ওরফে আনজান ভাইয়ের কাছ থেকে। সিরিয়ায় আইএস ডেরা থেকে এই নির্দেশ পাঠিয়েছিল শফি আরমার। একইসঙ্গে আইএস-এর মতাদর্শে বিশ্বাসী বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠন জেএমবি’র(নিউ) প্রধান মহম্মদ সুলেমান ওরফে তামিম আহমেদ চৌধুরি ওরফে বাংলার বাঘ-এর কাছ থেকে নির্দেশ এসেছিল গুলশানের কায়দায় হামলা চালাতে হবে এই বাংলাতেও।

জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ সূত্রে জানা গিয়েছে, এই সমস্ত নির্দেশ মুসার কাছে এসেছিল ‘সিক্রেট মেসেঞ্জার অ্যাপ’-এর মাধ্যমে। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, এই অ্যাপগুলি হল ‘সুপারপট’, ‘কিক’, ‘থ্রেমা’ এবং ‘টেলিগ্রাম’। এই অ্যাপগুলির মাধ্যমে আইএস কর্তাদের সঙ্গে মুসার ‘কথোপকথনের’ বিষয়ে আরও বিশদে জানতে এনআইএ’র পক্ষ থেকে আমেরিকা, জার্মানি ও নিউজিল্যান্ড কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলেও এন আই এ'র সূত্রের খবর।

এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানাচ্ছেন কলকাতা থেকে পরমাশিষ ঘোষ রায়।

XS
SM
MD
LG