অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইস্রাইলের বিমান বহর বুধবার সমগ্র গাযার বিভিন্ন লক্ষ নিশানা করে বোমা মেরেছে এন্তার

  • VOA Editor

ইস্রাইলের বিমান বহর বুধবার সমগ্র গাযার বিভিন্ন লক্ষ নিশানা করে বোমা মেরেছে এন্তার-হামাস জঙ্গিরা রকেট ছুঁড়েছে ইহূদি রাষ্ট্রের অভ্যন্তরভাগে।

ইস্রাইলী সামরিক বাহিনী, তারা যেটাকে কিনা অপারেশান প্রটেকটিভ এজ বলছে, সেই অভিযানের দ্বিতীয় দিনে হামলা তত্পরতা আরো জোরদার করেছে- এবং এতে করে,ইস্রাইল ও হামাসের মধ্যে যে সংঘাতের সূচনা হয়েছে, এমোনটি ২ হাজার বারো সালের শেষভাগের পর আর কখনো দেখা যায়নি।

ফিলিস্তিনী কর্মকর্তারা বলছেন-গাযায় ,এ সপ্তাহে কম হলেও ৩৭ ব্যক্তি নিহত হয়েছে- যার ভেতরে জঙ্গি ছিলো- ছিলো নারী ও শিশু।ইস্রাইল মৃতের কোনো সংখ্যা উল্লেখ করেনি।ইস্রাইলের জন নিরাপত্তা মন্ত্রী ইটযাক আহরোনোভিচ বলেছেন- আমরা থামবো না- বিমান হামলা হবে-নৌ আক্রমন চলবে কঠোরভাবে- দরকার হলে স্থল অভিযানও হতে পারে।

ইস্রাইল ইতিমধ্যে আভাসে-ইঙ্গিতে বলতে চেয়েছে-তাদের এ অভিযানে স্থল হামলাও শামিল করা হতে পারে।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা,বুধবার জার্মানীতে প্রকাশিত এক নিবন্ধে লিখেছেন-সংশ্লিষ্ট প্রত্যেকেরই সূবিবেচনা প্রসূতভাবে-হিসেব করে কাজ করা দরকার-প্রতিশোধ চরিতার্থ করা বা বদলা নেওয়া নয়।জার্মান সংবাদপত্র ডি যাইটে তাঁর এ লেখা প্রকাশিত হয়েছে।যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত দু’ই রাষ্ট্র সমাধানের পুনরূল্লেখ করে তিনি বলেন-শান্তির জন্যে ঝুঁকি নিতে প্রস্তুত থাকতে হবে দু’ পক্ষকেই।

ফিলিস্তিনী প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস মঙ্গলবার রাতে টেলিভিশনে প্রচারিত বয়ানে বলেছেন-ফিলিস্তিনি জনগনের নিরাপত্তা বিধানের দায়িত্ব পালনে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া-জাতিসংঘ এবং য়ুরোপিয় য়ুনিয়নের সমন্বয়ে গঠিত মধ্যপ্রাচ্য সংশ্লিষ্ট চতুর্পক্ষ The Mideast Quartet এবং জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের মতো আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোকে এগিয়ে আসতে হবে।ফিলিস্তিনী জনগণকে এককাট্রা হয়ে ধৈর্য্যধারণের আহ্বান জানান তিনি।

ইস্রাইলের প্রতিরক্ষা বিভাগীয় প্রধান মোশে ইয়ালৌন বলেছেন- গাযার হামাস জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে প্রস্তুত এখন ইহূদি রাষ্ট্র-দিন কয়েকেই তার পরিসমাপ্তি ঘটবে না।

ইস্রাইলী আর্মি বলেছে-অপারেশান প্রটেকটিভ এজ নামের এ অভিযানের অংশ হিসেবে পরিচালিত বিমান হামলা চালানো হয় শতাধিক লক্ষ নিশানা করে – যার মধ্যে ঘরবাড়ি ছিলো- ছিলো রকেট উত্ক্ষেপন অবস্থানসমুহ।

XS
SM
MD
LG