অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মীর কাশেম আলীর আপিল আবেদন শুনানিকালে দু’জন মন্ত্রী প্রধান বিচারপতির সমালোচনা করলেন


১৯৭১ সালে যুদ্ধাপরাধের দায়ে ট্রাইব্যুনালের রায়ে মৃত্যুদন্ডাদেশ প্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর ঊর্ধ্বতন নেতা মীর কাশেম আলীর আপিল আবেদনের শুনানিকালে মামলার প্রসিকিউশনের কার্যক্রমে প্রধান বিচারপতি অসন্তোষ প্রকাশ করায় দু’জন মন্ত্রী প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার কঠোর সমালোচনা করেছেন। আপিলের রায়ের দিন ৮ মার্চ ধার্য করা আছে। ঠিক তার দুই দিন আগে এই কঠিন-কঠোর সমালোচনা করা হলো। খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম প্রধান বিচারপতিকে বাদ রেখে নতুন বেঞ্চ গঠন করে পুনরায় আপিল আবেদনের শুনানির দাবি জানিয়েছেন। খাদ্যমন্ত্রী অ্যার্টনি জেনারেলকেও মামলা পরিচালনা থেকে বিরত থাকার জন্য বলেছেন। খাদ্যমন্ত্রী মনে করেন, এই আপিলের রায়ের ক্ষেত্রে ন্যায় বিচার পাওয়া যাবে না। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী মোজাম্মেল হক বলেন, সংবিধান অনুযায়ী প্রেসিডেন্টকেও ইমপিচ করা যায়। কাজেই কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নন।...ঢাকা থেকে আমীর খসরু

XS
SM
MD
LG