অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জামায়াতের হরতালে স্বাভাবিক জনজীবন


হরতালের কোন প্রভাব দেখা যায়নি ঢাকাসহ অন্যান্য শহরের রাস্তা-ঘাটে।

হরতালের কোন প্রভাব দেখা যায়নি ঢাকাসহ অন্যান্য শহরের রাস্তা-ঘাটে।

বৃধবার জামায়াতে ইসলামীর ডাকা হরতালে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে যান চলাচল স্বাভাবিক ছিল। তবে মহাসড়কগুলোতে যানবাহনের সংখ্যা স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় কম ছিল। বেশিরভাগ দোকানপাটও খোলা ছিল। দেশের কোথাও বড় কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, সাইনবোর্ড, বোর্ড বাজার এলাকায় কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুরের খবর পাওয়া গেছে। সহিংসতার আশঙ্কায় বিভিন্ন স্থানে জামায়াত-শিবিরের কর্মীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এসব অভিযানে দুই শতাধিক জামায়াত-শিবির কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নাশকতারোধে কয়েকটি জায়াগায় পুলিশ, র‌্যাবের পাশাপাশি সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিজিবির সদস্যদেরও মোতায়েন করা হয়েছে।

বিজিবির ২৮ ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর তানভীর মাহমুদ জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যে কোন ধরনের নাশকতা রোধে সীতাকুন্ড থেকে মিরসরাই পর্যন্ত ছয় প্লাটুন বিজিবি সদস্য টহলে ছিল। আত্মগোপনে থাকা ঢাকা মহানগর জামায়াতের আমির রফিকুল ইসলাম খান এক বিবৃতিতে বলেছেন, শান্ত্মিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা করে সরকার জনগনের বিরম্নদ্ধে অবস্থান নিয়েছে।

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় দলের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদের মৃত্যুদণ্ডের রায় সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে বহাল থাকার পর হরতালের কর্মসূচি ঘোষণা করে জামায়াত। ২৪ ঘন্টার এই হরতালের সময় বুধবার ভোর ৬ টা থেকে বৃহষ্পতিবার ভোর ৬ টা পর্যন্ত।ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্ট।

XS
SM
MD
LG