অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জাপানে পারমানবিক বিদ্যুত্ স্থাপনায় বিস্ফোরণের কারণে ভুমিকম্প ও সুনামির উদ্ধার কাজ দুরুহ হয়ে পড়েছে


ফুকুশিমা পারমানবিক স্থাপনার কাছাকাছি এলাকা থেকে ভয়েস অফ আমেরিকার সংবাদদাতারা জানাচ্ছেন যে ৮.৯ মাত্রার ঔ ভুমিকম্পের ২৪ ঘন্টার পর এখনও ঐ অঞ্চলে ছোট ছোট ভুকম্পন হচ্ছে।

ফুকুশিমা পারমানবিক স্থাপনার কাছাকাছি এলাকা থেকে ভয়েস অফ আমেরিকার সংবাদদাতারা জানাচ্ছেন যে ৮.৯ মাত্রার ঔ ভুমিকম্পের ২৪ ঘন্টার পর এখনও ঐ অঞ্চলে ছোট ছোট ভুকম্পন হচ্ছে।

জাপানে পারমানবিক বিদ্যুত্ স্থাপনায় এক বিস্ফোরণের কারণে, এর আগে ঘটে যিওয়া প্রচন্ড ভুমিকম্প ও সুনামির উদ্ধার কাজ আরও দুরুহ হয়ে পড়েছে। সে দেশের উত্তর পুর্বাঞ্চলের ব্যাপক এলাকা ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে।

শনিবার রাতে জাপান থেকে পাওয়া সর্ব সাম্প্রতিক খবরে জানা গেছে যে এই ভুমিকম্প ও সুনামির পর ১৩০০ বেশি লোক হয় মারা গেছে নয়ত নিখোঁজ রয়েছে। পুলিশ বলছে যে দু লক্ষ্ পনেরো হাজারের ও বেশি লোক জরুরী আশ্রয় স্থলের যেতে বাধ্য হয়েছে।

ফুকুশিমা পারমানবিক স্থাপনার কাছাকাছি এলাকা থেকে ভয়েস অফ আমেরিকার সংবাদদাতারা জানাচ্ছেন যে ৮.৯ মাত্রার ঔ ভুমিকম্পের ২৪ ঘন্টার পর এখনও ঐ অঞ্চলে ছোট ছোট ভুকম্পন হচ্ছে। শনিবার দিনে আরও আগের দিকে ফুকুশিমার অন্যতম একটি পারমানবিক স্থাপনায় বিস্ফোরণ ঘটার পর কর্তৃপক্ষ বাসিন্দাদের সেখান থেকে কুড়ি কিলোমিটার দূরে সরে যেতে বলেছেন। প্রধানমন্ত্রী নাওতো কান আজ বলেন যে জাপানের জন্যে এই ঘটনা আগে আর কখনও ঘটেনি। তিনি বলেন যে এই দুর্যোগ কোন ভাবে কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে। মি কান বলেন যে তিনি ফুকুশিমার বিদ্যুত্ কেন্দ্রে বিস্ফোরণে ক্ষতির ব্যাপারটাকে অগ্রাধিকার দিচ্ছেন।

ওদিকে জাপানের মূখ্য ক্যাবিনেট সেক্রেটারী ইউকিও ইদানো টোকিওর এক সংবাদ সম্মেলনে ঘটনা সম্পর্কে বলেন যে সরকার তদন্ত করে দেখছে যে ঐ স্থাপনায় ঠিক কি হয়েছিল।

এর মধ্যে ভুমিকম্পে ও সুনামিতে দূর্গতদের উদ্ধারের জন্যে হেলিকপ্টার পাঠানো হয়েছে । অনেকেই বাড়ির ছাদে আটকা পড়েছেন। শত শত মৃতদেহ এরই মধ্যে উদ্ধার করা হয়েছে। জাপানের রাজধানী টোকিও র অদূরে বসবাস করেন এম এ এম শাহিন। কিছুক্ষণ আগে তিনি টেলিফোনে আমাদের সেখানকার সর্বসাম্প্রতিক অবস্থার কথা জানালেন।

XS
SM
MD
LG