অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরী বলেছেন আন্ত প্রশান্ত মহাসাগরীয় বানিজ্য চুক্তি বিষয়ে চুড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর লক্ষ্যে ১২ জাতির আলোচনায় ভলো অগ্রগতি হয়েছে, তবে কিছু বিষয় এখনো বাকী রয়েছে। ৫ জাতি সফেরের অংশ হিসাবে সিঙ্গপুর গিয়ে জন কেরী ঐ বানিজ্য চুক্তির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে কথা বলেন। ভয়েস অব আমেরিকার সংবাদদাতাদের তথ্য নিয়ে রিপোর্ট করেছেন সেলিম হোসেন।

জন কেরী বলেন এই চুক্তি শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট দেশসমূহের জন্যে অর্থনৈতিক সুযোগ সৃষ্টি করবে তাই নয়, এর ফলে ঐসব দেশে তা শুশাষণ, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সমর্থক শক্তি হবে।

কেরী দক্ষিন এশিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের বানিজ্য ও বিনিয়োগ এবং এশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক যোগাযোগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে দক্ষিন এশিয়া সফর করছেন। মঙ্গলবার তিনি কুয়ালালামপুর পৌঁছান। সেখানে বুধবার তিনি ASEAN forum এ অংশ নেবেন।

গত কয়েক বছর ধরে চলছে তথাকথিত আন্ত প্রশান্ত মহাসাগরীয় বানিজ্য TPP নিয়ে আলোচনা। গত সপ্তাহে হাওয়াইয়ে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর বানিজ্য মন্ত্রীবর্গ চুড়ান্ত চুক্তির সিদ্ধান্তে উপনীত হতে ব্যার্থ হন। তা সফল হলে বিশ্বের ৪০ শতাংশ অর্থনীতি এর আওতায় আসতো।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরী বলেন প্রাইভেট সেক্টরের সঙ্গে পাল্লা দিতে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কারখানাসমূহে আন্তর্জাতিক শ্রম ও পরিবেশগত মান রক্ষার দাবী রয়ছে TPP তে। একই সঙ্গে রয়েছে অপ্রাপ্তবয়ষ্ক শ্রমিক নিয়োগ ও অনিরাপদ কর্মক্ষেত্র না রাখার বিষয়গুলোও।

“এতে মান উন্নয়নের বিষয়টি গুরুত্বপূর্ন। এই চুক্তির আওতায় সংশ্লিষ্ট প্রতিটি দেশকে আন্তজূআতিক শ্রম ওএ পরবিবশগত মান বজায় রাখতে হবে। প্রথিষ্ঠানে কারখানায় অপ্রাপ্তবয়স্ক শ্রমিকজ কর্মচারী নিয়োগ থেকে বিরত থাকতে হবে। অনিরাপদ কর্মস্থলের মান উন্নত করতে হবে”।

সিঙ্গাপুরে জন কেরী তার বক্তব্যে TPPর আওতাভুক্ত দেশসমূহের বানিজ্যে ঘুষ দুর্নিতী বন্ধ করার বিষয় গুরুত্ব দেন।

“TPP'র প্রতিটি অংশগ্রহনকারীকে নিশ্চিত করতে হবে যে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানসমূহ প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে ব্যাবসা করছে। বানিজ্য সংক্রান্ত ঘুষ দুর্নিতী বন্ধ করতে হবে”।

যুক্তরাষ্ট্রের পাওয়ার প্লান্ট থেকে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কার্বোন নির্গমন রোধের নতুন পিরকল্পনা তুলে ধরে তিনি বলেন জলবায়ু পরিবর্তনের সমাধান হচ্ছে জ্বালানী নীতি পরবর্তন করা।

জলবায়ু পরিবর্তন এমন এক সমস্যা যা কারো জন্যে অপেক্ষা করে না, কোনো সীমারেখা মানেনা। তবে বিজ্ঞানীদের ধারনা গ্রীনহাউজ গ্যাস কমিয়ে জলবায়ু পরিবর্তনের খারাপ প্রভাব কমানো সম্ভব।

কেরী বলেন এই অঞ্চলে অপর একটি বিষয় হচ্ছে দক্ষিন চীন সাগর নিয়ে সৃষ্ট ঝামেলা। চীন সেখানে কৃত্রিম দ্বীপ বানাচ্ছে আর ভিয়েতনাম মালয়েশিয়া তাইওয়ান ও ফিলিপাইন তার দাবীদার।

কুয়ালালামপুর শেষে কেরী ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয় হয়ে তার মধ্যপূর্ব ও দক্ষিনপূর্ব এশিয়া সফর কর্মসূচী শেষ করবেন এ সপ্তাহের শেষের দিকে।

ভিয়েতনাম যুদ্ধ শেষের বিখ্যাত দ্বিপাক্ষিক সম্পকের্র ২০ বছর পুর্তি উপলক্ষ্যে জন কেরীর হ্যানয় সফর।

জন কেরী তার ৫ জাতি সফর শুরু করেন মিশর ও কাতারে যাত্রাবিরতি করে। গাল্ফ কোঅপরেশন কাউন্সিল পররাষ্ট্র মন্ত্রীবর্গ ইরানের সঙ্গে পারমানবিক চুক্তিতে ব্যাপক সমর্থন করেন।

XS
SM
MD
LG