অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ দৈনিক প্রথম আলো ও দি ডেইলী স্টারের সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে


আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বাংলাদেশের দৈনিক প্রথম আলো ও দি ডেইলী স্টারের সম্পাদকের বিরুদ্ধে আনীত ফৌজদারী মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে- জানাচ্ছেন ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের রিপোর্ট
সরকারকে গণমাধ্যমের
স্বাধীনতা রক্ষা করতে হবে
আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ডেইলি স্টার ও প্রথম আলোর সম্পাদকের বিরুদ্ধে দায়ের করা ফৌজদারি মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে। একই সঙ্গে সংগঠনটি বলেছে, মানহানি ও রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা প্রত্যাহার করা উচিত। কারণ মানহানি ও রাষ্ট্রদ্রোহের আইন আন্তর্জাতিক সনদের পরিপন্থি।
এই সংগঠনটি মনে করে, দেশের শীর্ষ স্থানীয় পত্রিকার সম্পাদকদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অভিযোগ থেকে পরিস্কার যে সব মিডিয়াকে ভীতি প্রদর্শন করাই এর উদ্দেশ্য। সরকারকে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা রক্ষা করতে হবে। তা না হলে বাংলাদেশ একটি কর্তৃপরায়ণ রাষ্ট্রে পরিণত হবে। বাংলাদেশ সম্পর্কে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের সর্বশেষ রিপোর্টে বলা হয়, দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে ২০১৩ সাল থেকে বিনা বিচারে কারাগারে আটক রাখা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতা, আড়িপাতা ও কথপকথন অবৈধভাবে প্রকাশের অভিযোগ আনা হয়েছে। হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এশিয়া বিষয়ক পরিচালক ব্রাড অ্যাডামস বলেন, বাংলাদেশে এখন পার্লামেন্টের বেশির ভাগ আসন নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে এমন সরকার ক্ষমতায়। তাদের এবং জাতীয় নির্বাহী সব কর্তৃপক্ষের উচিত মিডিয়ার স্বাধীনতা রক্ষা করা। ব্রাড অ্যাডামস বলেন, মত প্রকাশের ওপর আঘাত শুধু মিডিয়ার ওপরই প্রভাব ফেলে না একই সঙ্গে তা প্রভাবিত করে সমালোচক সুশীল সমাজকে। সরকার সাংবাদিকদের পেছনে লাগলেও সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় সংঘটিত বিচার বহির্ভুত হত্যাকা-, গুম ও নির্যাতনের জন্য দায়ী ডিজিএফআই-এর সদস্যদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়নি।
ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্টÑ

XS
SM
MD
LG