অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মালালার ষোড়শ জন্মদিন জাতিসংঘে উদযাপিত

  • রোকেয়া হাযদার

১২ই জুলাই পাকিস্তানের ১৬ বছরের কিশোরী মালালা ইউসুফঝাই-এর জন্মদিন । এ বছর জাতিসংঘ, বিশ্বের তরুন সমাজ এবং নারী ও শিশু অধিকারের প্রবক্তারা এক স্মরণীয় অনুষ্ঠানে তার ১৬তম শুভ জন্মদিনটি পালন করছে ।
জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ১২ই জুলাই যুবসমাজের জন্য স্বর্ণাক্ষরে লেখা একটি দিন। পাকিস্তানের প্রত্যন্ত অঞ্চল পাখতুনখোয়ার ১৬ বছরের মালালা ইউসুফঝাই-এর জন্মদিনের বিশেষ অনুষ্ঠান।
বিপুল করতালির মাঝে মালালা এবং বিশ্ব যুবসমাজের প্রতিনিধিদের স্বাগত জানালেন মহাসচীব বান কি মুন ঃ
জাতিসংঘের বিশেষ অতিথি ছিল ১৬ বছরের মালালা। সঙ্গে নিয়ে এসেছিল মহাসচিব বান কি মুনের কাছে তার আবেদন পত্র – ২০১৫ সালের মধ্যে বিশ্বের সকল শিশু, বিশেষ করে কন্যা শিশুর শিক্ষার অধিকারের সুযোগ করে দেওয়ার দাবী।
মালালা জাতিসংঘে এই স্মরণীয় দিনে তার ভাষণে বললো এ হচ্ছে আমার জীবনের এক বিরাট মূহুর্ত, আজ কেবল আমার জন্মদিনই নয়
‘আজ হচ্ছে সেই দিনটি পালনের দিন, যেদিন সকল মহিলা, সকল বালক ও বালিকা তাদের অধিকারের দাবী তুলে ধরেছে’।
মালালা প্রয়াত বেনাজীর ভূট্টোর একটি শাল রায়ে জড়িয়ে এসেছে । সে কথাই জানালো। মালালার কথা আজ কেবল আমার দিন নয়, আপনাদের সবার।
‘সন্ত্রাসীরা হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করেছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ জখম হয়েছে। আমি তাদেরই একজন মাত্র। আমি তাদেরই একজন। আমি আমার জন্য নয়, যারা কোন কথা বলতে পারেন না তাদের পক্ষে আপনাদের সামনে এসেছি। যারা শান্তিতে বসবাস করার অধিকার পাওয়ার জন্য সংগ্রাম করছে, আমি তাদের দাবী নিয়ে এসেছি’।
বৃটেনের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী গর্ডন ব্রাউন যুব আন্দোলনের সঙ্গে কাজ করছেন। তিনিও এ উপলক্ষ্যে জাতিসংঘে উপস্থিত ছিলেন এবং মালালার কথা, যুব সমাজের অগ্রগতি, আশা আকাংখার কথা তুলে ধরেন।
মালালা তার নিজের দেশ পাকিস্তানে, মেয়েদের স্কুলে যাওয়ার দাবী তুলে ধরার কারণে গত বছর তালেবানরা তার প্রাননাশের চেষ্টা করে। কিন্তু বন্দুকের গুলী তার কণ্ঠ, তার অদম্য মনোবলকে থামিয়ে দিতে পারেনি। পাকিস্তানে এবং পরে বৃটেনে তার চিকিত্সার পর মালালা এখন সুস্থ হয়ে উঠেছে, ইংল্যাণ্ডেই পড়াশোনা করছে। আর সবার জন্য, বিশেষ করে মেয়েদের জন্য সমান শিক্ষার সুযোগের দাবী নিয়ে সোচ্চার।
সিয়েরা লিওনের চেরনোর বাহ্, জাতিসংঘের ইয়ূথ এ্যাডভোকেসি গ্রুপ ফর এডুকেশন ফার্স্ট-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কিশোর তরুন প্রতিনিধিরা তাদের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা এবং তাদের ভবিষ্যত পরিকল্পনার কথা তুলে ধরলো।
সবাই সুন্দর পৃথিবীর গড়ে তোলার আশা নিয়ে জানালো- শুভ জন্মদিন মালালা।

XS
SM
MD
LG