অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মিয়ানমারের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য রাখাইনের মংডু শহর পরিদর্শনে গেছেন ১০ জন বিদেশী কূটনীতিক। এর মধ্যে রয়েছেন ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র, বৃটেন, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, ভারত ও চীনের রাষ্ট্রদূতগণ। ওই এলাকায় এক সামরিক অভিযানে অন্তত ৮৬ জন নিহত হন। কয়েক হাজার রোহিঙ্গা শরনার্থী হিসেবে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন। এই ঘটনার প্রেক্ষাপটে মিয়ানমারের নোবেলজয়ী নেত্রী অং সাং সূচির নেতৃত্বাধীন সরকার বিশ্বব্যাপী কঠোর সমালোচনা, বিক্ষোভ ও প্রতিবাদের মুখোমুখি রয়েছে।

তবে মিয়ানমারের নোবেলজয়ী নেত্রী অং সাং সূচি সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত টিভি চ্যানেল নিউজ এশিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে দেশটির মুসলিম অধ্যুষিত রাজ্য মুসলিম ও বৌদ্ধদের মধ্যে তার ভাষায় অসন্তোষ প্রজ্জ্বলনের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অভিযুক্ত করেছেন। তিনি আরও উল্লেখ করেন যে, এটা কারও উপকারে আসবে না। প্রত্যেকে যদি শুধু পরিস্থিতির নেতিবাচক দিকটিকেই বড় করে দেখেন। আর যেখানে এটা সত্য যে, ওই এলাকার পুলিশ ফাঁড়িগুলোর ওপর আক্রমণ চালানো হয়েছিল। অং সাং সূচি অবশ্য তার সাক্ষাৎকারে এটাও বলেছেন, সর্বদা অসন্তোষের বিষবাষ্প আরও বেশি ছড়ানোর পরিবর্তে আমি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি এই আহবানও রাখব যে, মুসলিম ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের মধ্যে ভাল সম্পর্ক প্রতিষ্ঠায় যেন তারা সহায়তা করেন।
লন্ডন থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী

XS
SM
MD
LG