অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

এখনই ইইউ ছাড়ছে না বৃটেন
ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়ার ব্যাপারে নাটকীয় সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে বৃটেন। নীতি নির্ধারকদের উদ্ধৃতি দিয়ে সানডে টাইমস বলেছে, আগামী তিন বছরের মধ্যে বৃটেন ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়ছে না, এটি এখন প্রায় নিশ্চিত। একদিকে প্রস্তুতি নেই, অন্যদিকে ফ্রান্স ও জার্মানির নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে আছে দেশটি। আগামী বছর এ দুটি দেশে নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। বলা হচ্ছে ফ্রান্স ও জার্মানির নির্বাচনের ফলাফল না দেখে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া বা দর কষাকষি করা অন্ধকারে ঢিল মারারই শামিল। তেরেসা মে ইতোমধ্যেই এই দুটি দেশ সফর করেছেন। সেখানে তিনি অন্যরকম একটা বার্তা পেয়েছেন। বিশেষ করে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রাসোঁয়া ওঁলাদ বলেছেন, বিচ্ছেদ যখন হবেই তাহলে দেরি কেন?
গত ২৩শে জুন অনুষ্ঠিত গণভোটে জনরায় ছিল ব্রেক্সিটের পক্ষেই। প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। নতুন প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে দায়িত্ব নেয়ার পর বলেছিলেন, দ্রুততম সময়ের মধ্যেই ২৮ জাতির এ জোট ছাড়ার প্রক্রিয়া শুরু করবেন। এখন নীতি নির্ধারকরা বলছেন, লিসবন চুক্তির ৫০ অনুচ্ছেদ কার্যকর করতে আগামী বছর পুরোটাই লেগে যাবে। ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী ডেভিড ডেভিস ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিষয়ক মন্ত্রী লিয়াম ফক্স ইতোমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন, যত তাড়াতাড়িই করা হোক না কেন, দু’বছরের আগে এ প্রক্রিয়া শুরু করা সম্ভব নয়। ওদিকে সরকার ইউরোপ ছাড়তে বিলম্ব করছে এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর ব্রেক্সিট সমর্থকরা জনবিক্ষোভের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ইউকে ইন্ডিপেন্ডেন্ট পার্টির সাবেক নেতা নাইজেল ফ্যারাজ সতর্ক করেছেন, এর পরিণতি শুভ না-ও হতে পারে। কারণ বেশিরভাগ জনগোষ্ঠি ব্রেক্সিটের পক্ষেই রায় দিয়েছিল।
মতিউর রহমান চৌধুরী, লন্ডন থেকে

XS
SM
MD
LG