অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মায়াম্মারে পুলিশ ছাত্র-প্রতিবাদীদেরকে ছত্রভঙ্গ করতে বলপ্রয়োগ করেছে

  • VOA Editor

মায়াম্মারে পুলিশ ছাত্র-প্রতিবাদীদেরকে ছত্রভঙ্গ করতে বলপ্রয়োগ করেছে।শিক্ষা সংষ্কারের দাবিতে বিক্ষোভরত ছাত্রদের সঙ্গে যে তপ্ত পরিস্থিতি দেখা দেয় এভাবেই তা দমানো হয়।

প্রতিবাদি ছাত্রেরা পুলিশ প্রতিবন্ধক পেরিয়ে এগুতে চাইলে পুলিশ লাঠি ঘোরায়- ছাত্রদের অনেককেই তাড়া করে লাঠিপেটা করা হয়-পদাঘাত করা হয়- পুলিশের ট্রাকে নিয়ে তোলা হয়।

ঘটনাস্থল থেকে ধারণ করা ভিডিওচিত্রে দেখা যায় সশস্ত্র পুলিশ,প্রতিবাদীদের ব্যবহৃত একটি মোটোরযানের সামনের কাচ ভাঙ্গতে লাঠি চালায়-ঐ কাচ লক্ষ করে অন্যান্য জিনিষ ছোঁড়ে।

প্রতিবাদিদের নেতা থিহা উইন তিন ভয়েস অফ এ্যামেরিকাকে জানান পুলিশ কম হলেও ৩২ জনকে গ্রেফতার করেছে। বলেন-সংঘর্ষে প্রতিবাদীদের অনেকেই জখম হয়েছেন।

শত শত ছাত্রের প্রতিবাদী এ দলটি রওনা হয়েছিলো গত মাসে মান্দালে থেকে- তারা ইয়াঙ্গুন যাবার চেষ্টা করছিলো- লক্ষ তাদের, সামরিক আধিপত্যপুষ্ট সরকারকে দিয়ে নতুন শিক্ষা সংষ্কার আইনটি বাতিল করানো।গত সপ্তাহ থেকেই প্রতিবাদী দলটি ইয়াঙ্গুনের ১ শ’ ৩০ কিলোমিটার উত্তর প্রান্তের লেতপাদান শহরে আটকিয়ে ছিলো-পুলিশ ওখানটায় তাদের ঘিরে রেখেছিলো-আসতে দিচ্ছিলো না।

ছাত্র নেতারা ভয়েস অফ এ্যামেরিকাকে বলেছিলেন-সরকার প্রতিবাদীদেরকে প্রতিবাদ মিছিল নিয়ে ইয়াঙ্গুন যেতে দিতে রাজি হয়েছে – কিন্তু তার পর ঐ রফা ভাঙ্গলো কেন, সেটা পরিস্কার নয়।এখন থিহা উইন তিন বলছেন-রফা এখন খতম-এখন আর তারা কোনো কিছুই মানবে না।

বৃটেন ভিত্তিক বার্মা ক্যামপেইন ইউ কে’র মার্ক ফার্মানের ভয়েস অফ এ্যামেরিকাকে বললেন-এমোনটা যে হবে,সেটা পুরোপুরি আঁচ করাই গিয়েছিলো।

XS
SM
MD
LG