অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আফগান তালেবানরা আফগানিস্তানে দু’জন আমেরিকান সেনা সদস্যকে হত্যার দায়িত্ব স্বীকার করেছে।


আফগান তালেবানরা আফগানিস্তানে দু’জন আমেরিকান সেনা সদস্যকে হত্যার দায়িত্ব স্বীকার করেছে।

আফগান তালেবানরা আফগানিস্তানে দু’জন আমেরিকান সেনা সদস্যকে হত্যার দায়িত্ব স্বীকার করেছে।

আফগান তালেবানরা আফগানিস্তানে নেটোর আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সহায়তা বাহিনীর দু’জন আমেরিকান সেনা সদস্যকে হত্যার দায়িত্ব স্বীকার করেছে।

ওই গোষঠী শনিবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে জানায়, নেটো বাহিনীর কোরান শরীফ পোড়ানোর প্রত্যুত্তর হিসেবে তাদের প্রানবধ করা হয়েছে। কাবুল থেকে প্রকাশিত খবরে জানা গ্যাছে, নিহত ব্যক্তিদের দু’জন যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনীর কর্নেল আর মেজর। তাঁদের দুজনকে শনিবার কঠোর নিরাপত্তা আচ্ছাদিত আফগানিস্তানের অভ্যন্তরীন মন্ত্রণালয়ের চত্বরে গুলি ক’রে হত্যা করা হয়।

নেটো শনিবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে জানায়, এক ব্যক্তি সেনা সদস্যদের দিকে বন্দুক উচিয়ে ধরে। তবে বিবৃতিতে বন্দুকধারী বা হতাহতদের পরিচিত প্রকাশ করা হয়নি।

ওদিকে আফগানিস্তানে কোরান শরীফ পোড়ানোর প্রতিবাদের পঞ্চম দিন শনিবারে সারা দেশে আরো সহিংস ঘটনা ঘটেছে। ইটপাটকেল নিক্ষেপরত শতশত বিক্ষোভকারী উত্তর আফগানিস্তানে জাতিসংঘ দপ্তরের চত্বরে চরাও হয়। কর্মকর্তারা বলেন, কুন্দুযের ওই ঘটনায় কমপক্ষে তিন ব্যক্তি নিহত এবং ৪৭ জন আহত হয়।

কর্তৃপক্ষ জানায়, মঙ্গলবার কাবুলের অদুরে বাগরাম বিমান ঘাটিতে নেটো সৈন্যদের কোরান শরীফ পোড়ানোর খবর প্রকাশিত হবার পর থেকে এপর্যন্ত কম পক্ষে ২৭ ব্যক্তি প্রান হারিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং অন্যান্য আমেরিকান কর্মকর্তা মুসলমানদের পবিত্র ধর্ম গ্রন্থের অবমাননার ঘটনায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু ঐ দুঃখ প্রকাশ আফগানিস্তান ও পার্শ্ববর্তী দেশ পাকিস্তানের জনগনের ক্ষোভ প্রশমনে সহায়তা করেনি।

ওদিকে আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় জানায়, শনিবার রাস্তার ধারে পাতা একটি বোমা অকেজো করার সময়ে ছয় জন আফগান সেনা মারা গ্যাছে। মন্ত্রনালয় বলে, পশ্চিমের বাদঘিস প্রদেশের মুকুর জেলায় ওই ঘটনাটি ঘটে।

XS
SM
MD
LG