অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

অভিবাসন ইসুতে ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে ভিন্নমত পোষণ করেন বিভিন্ন রাজ্যের গভর্ণর


ওয়াশিংটনে চলমান National Governors Association (NGA) এর শীতকালীন বার্ষিক সম্মেলনে বিভিন্ন রাজ্যের গভর্ণর দেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নে অবদান রাখার পাশাপাশি ফেডারেল সরকারের কর্মসূচী বাস্তবায়নে সহায়তা করার কথা বলেছেন। তবে অভিবাসন ইসুতে ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে অনেকেই ভিন্নমত পোষণ করেন। ভয়েস অব আমেরিকারয় দেয়া সাক্ষাৎকারে ষ্পষ্ট হয়ে ওঠে গভর্ণরদের বক্তব্য।

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যের গভর্ণরদের সংগঠান National Governors Association এর এবারকার সম্মেলনের প্রধান লক্ষ্য দেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের ১ লক্ষ কোটি ডলার খরচ করার প্রস্তাব বাস্তবায়নে কিভাবে কাজ করা যায় তা নিয়ে আলোচনা।

প্রস্তাবিত উন্নয়ন খাতগুলোর মধ্যে থেকে স্বাস্থ্য সেবা সংস্কার, শিক্ষা, শিশুর পরিচর্যা ও সাইবার নিরাপত্তাকে বেশী গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। এর পাশাপাশি নতুন ট্রাম্প প্রশাসনের বিভিন্ন নীতিমালা কোন রাজ্যের গভর্ণর কিভাবে দেখেন তা নিয়ে ভয়েস অব আমেরিকার রিপোর্টারদের কাছে মন্তব্য করেন কয়েকটি রাজ্যের গভর্ণর।

ভার্জিনিয়া গভর্ণর টেরি ম্যাকআলিফ বলেন অবকাঠামোগত ইউন্নয়নে এই প্রশাসনকে সহযোগিতা করে যাবো। অভিবাসন প্রশ্নে তাঁর বক্তব্য হচ্ছে:

“এই দেশের অভিবাসি সম্প্রদায়ের প্রতি কোনো রকম বৈষম্যমূলক পদক্ষেপকে আমরা অনুমোদন দেবো না। এটি একটি স্বাধীনভাবে মত প্রকাশের দেশ। বিভিন্ন দেশের যাত্রী যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা বিষয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। ইমিগ্রেশন ও কাষ্টম কর্মকর্তাদের সাম্প্রতিক অভিযানে আমরা উদ্বিগ্ন। আমি প্রশ্ন করতে চাই মানুষকে কেন সন্ত্রস্ত্র করা হবে।

আলাস্কা গভর্ণর বিল ওয়াকার বলেন: “অভিবাসন বিষয়টি মূলত ফেডারেল সরকারের দায়িত্ব। তবে এতে যারা ক্ষতিগ্রস্থ হবেন তাদের সহায়তা করার চেষ্টা করবো আমরা। আমরা আমাদের সীমান্ত খোলা রেখেছি সবার জন্যে”।

অরেগন গভর্ণর কেট ব্রাউন বলেন: “আমরা জানি না ট্রাম্প প্রশাসনের পরবর্তী পদক্ষেপ কি হবে। আমি অরেগনে ভালো বেতনে মানুষের চাকরীর ব্যাবস্থা করার চেষ্টা করছি। আমাদের নিজস্ব আইন হচ্ছে অভিবাসিদেরকে অপরাধী হিসাবে গন্য না করার। বৈষম্য না করা। সব মানুষকে সম্মান মর্যাদা দেবে অরেগন। আমরা মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করবো। মুসলমানদের জন্য রেজিষ্ট্রেশনের বিষয়টিতে আমরা অংশ নেবো না”।

ট্রাম্প প্রশাসনের সাম্প্রতিক অভিবাসন আইন প্রসঙ্গে নেভাদা গভর্ণর ব্রায়ান স্যান্ডোভাল বলেন: “সব রাজ্যই এতে প্রভাবিত হয়েছে। আমি এতে উদ্বিগ্ন। আমি একজন ফেডারেল জাজ ছিলাম। সিটিজেনশীপে দেয়ার অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করতাম। আমি জানি অভিবাসিদের অবস্থার কথা। আমার মত হচ্ছে নাগরিক অধিকার সবারই থাকবে; তার কাগজপত্র থাকুক বা না থাকুক”।

একই বিষয়ে ইউটাহ গভর্ণর গ্যারি হাবার্ট বলেন, “আমি উদ্বিগ্ন অসন্তুষ্টু। আমি শরনার্থী আসার পক্ষে। তারা সন্ত্রাসী নয়। ইউটাহয় আমরা তাদের গ্রহন করি। শরনার্থী শিবিরে রাখি। প্রশিক্ষন দেই। এবং সমাজের যোগ্য করে গড়ে তুলি। ৬৫ হাজার শরনাথর্থী আছেন ইউটাহতে”।

XS
SM
MD
LG