অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

উত্তর কোরিয়ার কিম যংইল মারা গেলেন ৬৯ বছর বয়সে


উত্তর কোরিয়ার কিম যংইল মারা গেলেন ৬৯ বছর বয়সে

উত্তর কোরিয়ার কিম যংইল মারা গেলেন ৬৯ বছর বয়সে

উত্তর কোরিয়ার দীর্ঘদিনের নেতা কিম যং ইল প্রয়াত হয়েছেন ।

কোরিয়ার সরকারী কেন্দ্রীয় বার্তা সংস্থা kcna সোমবারে তাদের পরিবেশিত খবরে জানিয়েছে বিশ্বের বাদবাকি অংশ থেকে বিচ্ছিন্ন ৬৯ বছর বয়সী ঐ নেতা মারা যান শনিবার দিন হার্ট এ্যাটাকে – যখন কিনা তিনি তিনি ট্রেনে করে যাচ্ছিলেন তাঁর এক সরেজমিনে পথনির্দেশ দানের সফরে । বার্তা সংস্থা জানায় – অত্যধিক কাজের দরূন তাঁর শরীর ও মনের ওপর যে চাপ পড়ে তাতেই তাঁর মৃত্যু হয় ।

Kcna বলছে শেষকৃত্যানুষ্ঠান হবে ডিসেম্বরের ২৮ তারিখে পিয়ংইয়াংয়ে । ডিসেম্বরের ১৭ থেকে ২৯ তারিখ অবধি জাতিয় শোক পালনের ঘোষনা দেওয়া হয়েছে ।

উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল সুং ১৯ শ’ ৯৪ সালের মারা যাবার পর কিম যং ইল ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হন । তাঁর জীবনী নিয়ে নির্ভরযোগ্য তথ্য বড়ো একটা মেলে না । প্রকাশ্যে তাঁকে দেখতে পাওয়ার ঘটনা ছিলো খুবই বিরল । তাঁর কণ্ঠ বৈদ্যুতিন সম্প্রচারে শোনা গিয়েছে সেও ঐ কখনো সখোনই ।

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কোনো তোয়াক্কাই তিনি করতেন না - - উত্তর কোরিয়ার পারমানবিক কর্মসূচী তিনি প্রসারিত করেছেন , অথচ উত্তর কোরিয়ার লক্ষ লক্ষ মানুষ সে সময়ে বুভুক্ষ থেকেছেন – বিশ্ব তাঁকে সম্ভবত: এভাবেই স্মরন করবে ।

গত বছরের শেষের দিকে মি:কিম তাঁর সর্ব কনিষ্ঠ পুত্র কিম যং উনকে চার তারা জেনারেল পদে উন্নীত করেন । এবং তাতে মনে হয়েছিলো তিনি বোধয় বিশ্বের একমাত্র কমিউনিস্ট শাষক পরিবারকে তৃতীয় প্রজন্ম অবধি সম্প্রসারিত করতে চেয়েছেন ।

সোমবার Kcna জানগনের প্রতি কিম যং উনকে অনুসরন করার অনুরোধ জানায় । তাঁর বয়স এখন আটাশ বছর বলেই অনুমান করা হয় ।

উত্তর কোরিয়ার মানুষজন কিম যং ইলের মৃত্যুতে দু:খ প্রকাশ করেছে– অনেককেই প্রকাশ্যে রাস্তা ঘাটে কাঁদতে দেখা গিয়েছে ।

XS
SM
MD
LG