অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কড়া নিরাপত্তা ও উষ্ণ সনম্বর্ধনায় দুই দিনের ঐতিহাসিক সফরে শুক্রবার সন্ধ্যায় কেনিয়ায় পৌঁছেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসাবে এটিই তার প্রথম কেনিয়া সফর। কেনিয়ানরা প্রেসিডেন্ট ওবামার আগমনকে ‘হোমকামিং’ আখ্যা দিয়ে সুন্দর করে সাজিয়েছেন নাইরোবী শহরকে।

আফ্রিকায় প্রথমবার অনুষ্ঠিত বিশ্ব উদ্যোক্তা সম্মেলনে শনিবার প্রেসিডেন্ট ওবামা যৌথ আয়োজক হিসাবে ভাষণ দেবেন।

প্রেসিডেন্ট ওবামর জন্য কেনিয়ার বিশেষত্ব হচ্ছে দেশটি তাঁর পিতার জন্মস্থান এবং পশ্চম কেনিয়ার গ্রামে তিনি সমাহিত। ২০০৬ সালে সেনেটর হিসাবে শেষবার কেনিয়া সফর করেন বারাক ওবামা। কেনিয়ার ডেপুটি প্রেসিডেন্ট উইলিয়াম রুতো বলেন তার এই সফর আমাদের জন্যে আমাদের দেশের জন্যে আনেক কিছু।

“মিষ্টার ওবামা অন্য যে কোনো আমেরিকান প্রেসিডেন্টের মতো নয়। তার রয়েছ আফ্রিকার শেকড়, বিশেষ করে কেনিয়ার শেকড়; আর তাই আমাদের জন্যে তিনি খুবই গুরুত্বপূর্ন ও আলাদা রকম”।

তার সফরের মূল বিষয় বানিজ্য ও নিরাপত্তা বৃদ্ধি। কেনিয়া সোমালিয়ার জঙ্গী গোষ্ঠী আল শাবাবের হামলার আশংকায় রয়েছে। এ বছর এপ্রিলে গারিসা বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটে তাদের সবচেয়েয় ভয়াবহ হামলার ঘটনা যাতে ১৪৮ জনকে হত্যা্ করে তারা। তাদের বেশিরভাগই ছিল শিক্ষার্থী।

XS
SM
MD
LG