অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়া প্রশ্নে ডেমোক্র্যাট-রিপাবলিকান মতৈক্য আগামী সপ্তাহে ভোটাভুটি


সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের সেনা অভিযান প্রশ্নে আগামী সপ্তাহে অনুষ্ঠিতব্য ভোটভুটিতে ডেমোক্র্যেট ও রিপাবলিকান দুই দলের আইন প্রণেতারাই প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে সমর্থন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

হাউজ স্পিকার জন বোয়েনার এবং হাউজ মাইনরিটি লীডার ন্যান্সী পেলোসী মঙ্গলবার হোয়াইট হাউজে প্রেসিডেন্টর সঙ্গে বৈঠকের পর এ প্রতিশ্রতির কথা বলেন।

জন বোয়েনার বলেন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের কর্মকান্ড বন্ধ করার সামর্থ্য আমাদের রয়েছে এবং বিশ্বের অন্যান্য দেশসমূহকেও সাবধান করা প্রয়োজন যেনো কোথাও আর রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহৃত না হয়।

ন্যান্সী পেলোসী বলেন সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার কোনো সভ্য কাজ নয়। যুক্তরাষ্ট্রের এর অবশ্যই জবাব দেয়া উচিৎ।

সিরিয়া সরকার রাসায়নিকঅস্ত্র ব্যবহারের অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, সিরিয়ার বিরুদ্ধে সেনা অভিযান পরিচালনায় যুক্তরাষ্ট্রের আইন প্রণেতাদের অনুমোদন পাবার ব্যপারে তিনি দৃঢ় বিশ্বাসী। সিরিয়া সরকারের বিরুদ্ধে সন্দেভাজন রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের অভিযোগ ও সেখানে সেনা অভিযান পরিচালনার বিষয় নিয়ে মঙ্গলবার কংগ্রেস সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকের শুরুতেই তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন তিনি কংগ্রেসের কাছে সীমিত আকারে সেনা অভিযান পরিচালনার অনুমোদন চাইছেন যাতে বাশার আল আসাদের সরকার এবং অন্যান্য রাষ্ট্রসমূহ, যারা আন্তর্জাতিক বিধি-নিষেধ নিয়ে খেলা করছে, তাদের কাছে পরিস্কার বার্তা পাঠানো যায়। তিনি আরো বলেন যুক্তরাষ্ট্রের একটি সীমান্ত কৌশল রয়েছে যার দ্বারা সিরিয়ার বিদ্রোহীদের সামর্থ বাড়িয়ে তোলা যায়।

মঙ্গলবার পরে, পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী চাক হেগেল এবং জয়েন্ট চীফস অব ষ্টাফ চেয়ারম্যান জেনারেল মার্টিন ডেম্পসি পরে সেনেট ফরেন রিলেশনস কমিটির বৈঠকে বসার কথা রয়েছে।

হোয়াইট হাউজ কর্মকর্তারা রুদ্ধদ্বার বৈঠকে প্রেসিডেন্টের প্রস্তাবের পক্ষে সমর্থন আদাইয়ের লক্ষ্যে আইন প্রণেতাদের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে সোমবার দুই শীর্ষ রিপাবলিকান সেনেটার জন ম্যাকেইন এবং লিনডসি গ্র্যাম বলেছেন বলেছেন সিরিয়া বিষয়ে প্রেসিডেন্টর সঙ্গে আলোচনা করেতারা উৎসাতিহ বোধ করছেন। তবে প্রেসিডেন্টরপ্রস্তাবেকিছু সংশোধনী প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন তারা।

ম্যাককেইন বলেন এমনকিছুরপ্রয়োজন যাতে সিরিয়ার সরকার বিরোধীরা জোর পায় এবং প্রেসিডেন্ট বাসার আল আসাদ যাতে দুর্বল হয়।

এছাড়া সোমবার জাপানী প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে এবং প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা টেলিফোনে আলাপকালে সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন মঙ্গলবার নিরাপত্তা পরিষদ সদস্যদেরকে সিরিয়ার সর্বশেষ পরস্থিতি অবহিত করবেন। ইতিমধ্যেই তিনি সিরিয়া থেকে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের তদন্ত শেষ করে ফিরে আসা জাতিসংঘ তদন্ত দলের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেছেন।


সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ অবস্থার কারনে নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে দেশ ছেড়ে চলে যাচ্ছেন শত সহস্র মানুষ। জাতিসংঘ শরনার্থী সংস্থা জানিয়েছে ইতিমধ্যেই ২০ লক্ষ্য সিরিয়ান শরনার্থী দেশ ছেড়েছেন। এক বছর আগে এই সংখ্যা ছিল ২ লক্ষ ৩১ হাজার।

জাতিসংঘ শরনার্থী সংস্থার প্রধান এ্যান্টোনিও গুটিরেজ এই অবস্থাকে সাম্প্রতিক ইতিহাসের ভয়াবহ মানবিক দুর্যোগ বলে অভিহিত করেছেন। বেশরিভাগ শরানার্থী আশ্রয় নিয়েছেন পাশ্ববর্তী রাষ্ট্র জর্ডান, লেবানন, তুরস্ক ও ইরাকে।

জাতিসংঘ শরনার্থী সংস্থার রিপোর্টে বলা হয়েছে বেশীরভাগ শরনার্থীই এক কাপড়ে বেরিয়ে পড়েছেন। তাদের সাহায্য করতে জন্য আন্তর্জাতিক সহায়তার আহবান জানিয়েছেন সংস্থাটি।

ইসরাইল বলেছে তারা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ভুমধ্যসাগরে একটি যৌথ ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় থেকে ভুমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষার আলামত পাওয়া গেছে এমন সন্দেহ প্রকাশের কিছুক্ষণের মধ্যেই ইসরাইলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় মঙ্গলবার এই যৌথ সেনা মহড়ার ঘোষণা দেয়।

ইসরাইল জানায় তারা এ্যাংকর-টাইপ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালায় যা ইসরাইলের কেন্দ্রস্থলের একটি ঘাটি থেকে নিয়ন্ত্রণ করা হয়।
XS
SM
MD
LG