অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পাকিস্তানে ড্রোন হামলা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসে শুনানী-প্রফেসার জিল্লুর রহমান খানের বিশ্লেষন


সন্ত্রাস বিরোধি কর্মসূচীতে আধুনিক যুগের মানুষবিহিন উড়োজাহাজ ড্রোনের ব্যবহার নিয়ে ইদানিং সারা বিশ্বেই , এমোনকি যুক্তরাষ্ট্রেও আলোচনা-বিতর্কের আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে । পাকিস্তানে , বিশেষ করে পাকিস্তানের উত্তর পশ্চিমাংশে , উত্তরাঞ্চলবর্তি ওয়াযিরিস্তানে আল কায়েদা-তালেবান সন্ত্রাসীদের নিশানা করে ড্রোনের হামলায় , নিশানা করা সন্ত্রাসীর সঙ্গে সঙ্গে নিরিহ-নিরপরাধ সাধারন মানুষজনও নিহত হয়েছেন অনেক ক‘বার । যুক্তি দেখিয়ে যদিও এই প্রাণ নাশকে আনুষঙ্গিক ক্ষতি কো ল্যাটারাল ড্যামেজ রূপে চিহ্নিত করা হয়েছে , কিন্তু সুশীল সমাজ সাধারণভাবে এ যুক্তি মানে নি । এখন যুক্তরাষ্ট্রেও এই ড্রোন হামলার প্রয়োগ নিয়ে বিতর্ক দেখা দিচ্ছে , এই ক’দিন আগেই যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের এক শুনানীতে হাজির হয়ে পাকিস্তানের এক প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক রফিকুর রহমান , কিভাবে ২ হাজার ১২ সালের ২৪ অক্টোবর এই ড্রোনের আঘাতে তাঁর মা ডান্ডিকালা গ্রামের ৬৮ বছর বয়সি মায়মুনা বিবি ঘরের সামনের ক্ষেত থেকে সবজি তুলতে গিয়ে নিহত হয়েছিলেন , তাঁর ছোটো দু’টি বাচ্চা আর তাঁর ভাইয়ের বাচ্চা মিলিয়ে ৬টি শিশূ কিভাবে জখম হয়েছিলো সকরূণ সে বিবরণ তুলে ধরেন ।
রফিকুর রহমান সঙ্গে নিয়ে এসেছিলেন তাঁর পুত্রকে – এনেছিলেন ন’ বছরের কন্যা নিবলিয়া উর রহমানকেও । নিবলিয়াও বলেছিলো কি ভয়ঙ্কর ছিলেো সেই ঈদের আগের দিনের ঐ ড্রোন আক্রমন । ডক্টর জিল্লুর রহমান খান , আপনার মন্তব্য !
কংগ্রেস বিধায়ক এ্যালেন গ্রেসানের আমন্ত্রণে আসেন রফিকুর রহমান ও তাঁর সন্তানেরা । পরে , সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলার সময় কংগ্রেস বিধায়ক গ্রেসান মত প্রকাশ করেন – পাকিস্তান চাইলেই তো এ ড্রোন হামলা বন্ধ করতে পারে । তার আকাশ সীমা সূরক্ষিত রাখবার দক্ষতা তার বিমান বাহিনীর আছেই , সেই সঙ্গে পাকিস্তানের সম্মতি ব্যতিরেকে এ হামলা যুক্তরাষ্ট্রের তরফে পরিচালনা করা সম্ভব নয় । বলেন – তবে হ্যাঁ এটাও ঠিক যে , আমাদের , যুক্তরাষ্ট্রের জাতিয় নিরাপত্তার সঙ্গেও এটি প্রত্যক্ষভাবে সংশ্লিষ্ট – জন-গুরুত্বপূর্ণ দিক দিয়ে অতীব গুরুত্বপুর্ণ এটি । প্রফেসার জিল্লুর রহমান খান আপনার মূ্ল্যায়ন !

পাকিস্তানে মানুষবিহিন ড্রোন উড়োজাহাজের হামলায় অসামরিক লোকজনের প্রাণহানি নিয়ে , পাকিস্তানে এবং সেই সঙ্গে অন্যত্রও বিরুপ সমালোচনা হচ্ছে – মানবাধিকার লংঘনের অভিযোগ উঠছে , এমোনকি যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসেও এক শুনানী অধিবেশন হয়ে গেলো এই গত সপ্তাহে , যেখানে পাকিস্তানের এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কিভাবে তাঁর মা’ মারা গিয়েছিলেন ড্রোন বিমানের আঘাতে তার বর্ণনা উপস্থাপন করেন । এই ড্রোন হামলার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের সেই অধিবেশন ও বিশিষ্ট রাষ্ট্র বিজ্ঞানী অধ্যাপক জিল্লুর রহমান খানের বিশ্লেষন সহ এখন শুনবেন একটি রিপোর্ট – প্রণয়ন করেছেন সরকার কবীরূদ্দীন ।pakistan drone
XS
SM
MD
LG