অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পাকিস্তান থেকে কর্তৃপক্ষীয় সূত্রে জানা গিয়েছে- করাচীতে, সশস্ত্র বন্দুকধারীরা একটি বাসের ওপর চড়াও হলে পর কমসে কম ৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছে তাতে। নিহতদের ভেতর নারী আরোহী ছিলেন ১৬জন। হতাহতরা সংখ্যালঘু শিয়াপন্থী ইসমাইলী মুসলীম সম্প্রদায়ের সদস্য।

প্রাদেশিক পুলিশ বাহিনীর প্রধান ইন্স্পেক্টর জেনারেল গুলাম হায়দার জামাইল বলেছেন-মোটোরবাইক আরোহি ৬ ব্যক্তি অতর্কিতে বাসটিকে ঘেরাও ক’রে ঐ চড়াও অভিযান চালায়- বাসের ভেতর ঢুকে বেধড়ক গুলি চালায় তারা। বাসটিতে করে ঐ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকজন চাকরিস্থলে যাচ্ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শিরা পুলিশকে জানান- বাস আরোহিরা প্রথমে ভেবেছিলেন যে হামলাকারিরা বুঝিবা-লুটেরা,তস্কর আর তাই ভেবে তাঁরা তাদের সামনে টাকা পয়সা: এমোন কি মোবাইল ফোনও মেলে ধরেন- এভাবেই প্রাণ ভিক্ষা করেন তাদের কাছে। কিন্তু,তারা তাতে কর্নপাত না করে,মাথা হেঁট করে থাকতে বলে - আর তার পরই স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র দিযে গুলি বর্ষন শুরু করে। প্রত্যক্ষদর্শিরা জানান- বাসের আরোহিদের ভেতর দু’টি শিশুকে তারা মারেনি-আর মারেনি বাসের ড্রাইভারকে। ড্রাইভারকে তারা বাস চালিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয় ।

হামলাকারিরা এর পর চম্পট দেয়। পুলিশ কিছু কিছু প্রচারপত্র উদ্ধার করেছে যা থেকে অল্প জানাশোনা ছোট্র একটা জঙ্গি গোষ্ঠী খুরাসানের কিছু হদিস মিলেছে।

XS
SM
MD
LG