অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

২০১৪ সালে ভারতে বৃষ্টি হয়েছিল স্বাভাবিকের ৮৮ শতাংশ। কেন্দ্রীয় ভূবিজ্ঞান মন্ত্রি, হর্ষ বর্ধন জানিয়েছেন, এ বছরও বর্ষা অতটাই কম হওয়ার আশঙ্কা,অর্থাৎ ৮৮ শতাংশই। এর ফলে ভারতে খরার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। গত ১১৫ বছরের রেকর্ড অনুসারে, পরপর দু বছর খরার উদাহরণ রয়েছে কেবল তিন বার - ১৯০৪ ও ১৯০৫ সাল, ১৯৬৫ ও ১৯৬৬ সাল এবং ১৯৮৬ ও ১৯৮৭ সাল।

এ বছর গড়ে স্বাভাবিকের ৮৮% বৃষ্টি হলেও দেশের সর্বত্র একই রকম বৃষ্টি হবে না। উত্তর ও পশ্চিম ভারতে স্বাভাবিকের ৮৫%, দক্ষিণ ভারতে ৯২% ও বাকি দেশে স্বাভাবিকের ৯০% বৃষ্টি হবে।

দেশে সবচেয়ে আগে বর্ষা ঢোকে কেরল উপকূলে - ৩০ মে নাগাদ। এ বছর কেরলে বর্ষা ঢুকতে অন্তত ৫ জুন। খরার আশঙ্কা সত্যি হলে মার খাবে কৃষি উতপাদন। দেশের ৫০% কৃষিই বর্ষার ওপর নির্ভরশীল। থমকে যাবে অর্থনীতির বৃদ্ধির হার। কৃষিজাত তো বটেই, অন্যান্য সামগ্রীরও দাম বাড়বার আশঙ্কা প্রবল হবে।

এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানাচ্ছেন আমাদের কোলকাতা প্রতিবেদক গৌতম গুপ্ত :

XS
SM
MD
LG