অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সোমবার মিট রমনি এক ভাষণে বিশ্বব্যাপী নের্তৃত্ব প্রদানে আমেরিকার ব্যর্থতার জন্যে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সমালোচনা করেন। তিনি বলেন এই ব্যর্থতা , বিশেষত মধ্য প্রাচ্যে , সংঘাতের আশঙ্কা বাড়িয়ে তুলেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের লেকসিংটনে Virginia Military Institute এ ৩০ মিনিটের এক ভাষণে রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থি মি ওবামাকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টির জন্যে দায়ী করেন। তিনি বলেন এর ফলে মধ্য প্রাচ্যে শান্তির আশা খর্ব হয়েছে , এবং বিশেষত ইরানের মতো আমাদের উভয় দেশের শত্রুরা আরও সাহস অর্জন করেছে।

তিনি আরও বলেন যে তিনি নির্বাচনে জয়ী হলে তিনি ইরানের নেতাকে এই বিষয়টি পরিস্কার ভাবে জানিয়ে দেবেন যে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার বন্ধু ও মিত্ররা ইরানকে পারমানবিক অস্ত্র ক্ষমতা অর্জনে বাধা দেবে। মিট রমনি আরও বলেন যে তিনি ইরানের উপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে দ্বিধাগ্রস্ত হবেন না এবং পুর্ব ভূমধ্যসাগর ও পারস্য উপসাগরে এয়ার ক্যারিয়ার টাস্ক ফোর্স স্থায়ী ভাবে মোতায়েন করবেন।
প্রেসিডেন্ট ওবামা তার পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক মন্তব্যে তার সন্ত্রাস বিরোধী রেকর্ডকে তুলে ধরেছেন , তুলে ধরেছেন আল ক্বায়দা নেতা ওসামা বিন লাদেনকে হত্যার বিষয়টিও। মি ওবামা ইরাক ও আফগানিস্তানে যুদ্ধ গুটিয়ে আনার ব্যাপারে তাঁরসিঁদ্ধান্তের উপর জোর দেন।

তবে মি রমনি , ইরাক থেরক , তাঁর কথায় “ তড়িঘড়ি করে” যোদ্ধৃবাহিনী প্রত্যাহারের সমালোচনা করেন। তিনি বলেন যে সেখানে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক অর্জনকে , ক্রমবর্ধমান সহিংসতা এবং বিদ্রোহী আল ক্বায়দা , গণতন্ত্রের দূর্বলতা এবং ক্রমবর্ধমান ইরানী প্রভাব নস্ম্যাৎ করে দিচ্ছে।
XS
SM
MD
LG