অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতে সিগারেট খাওয়া ও সিগারেটের উতপাদন কমছে, কিন্তু বাড়ছে মহিলা ধূমপায়ীর সংখ্যা


ভারতে সিগারেট খাওয়া ও সিগারেটের উতপাদন কমছে। কিন্তু সামগ্রিক ভাবে ধূমপায়ীর সংখ্যা কমে গেলেও বেড়ে চলেছে মহিলা ধূমপায়ীদের সংখ্যা। ১৯৮০ সালে ভারতে সহিলা ধূমপায়ীর সংখ্যা ছিল পাঁচ মিলিয়ন, ২০১২ সালে সংখ্যাটা বেড়ে হয়েছে প্রায় ১৩ মিলিয়ন। ভারতীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের হিসেব বলছে, এই সংখ্যাটা আমেরিকার মহিলা ধূমপায়ীদের সংখ্যার পরেই পৃথিবীতে সর্বোচ্চ। আবার, পৃথিবীর অধিকাংশ দেশে তামাকের ব্যবহার প্রধানত সিগারেটেই সীমাবদ্ধ। ভারতে কিন্তু ধূমপায়ীদের মধ্যে সিগরেটের চেয়ে বিড়ি খান বেশি মানুষ। আর ধূমপানের চেয়েও তামাক ব্যবহার বেশি হয় চিবিয়ে খেয়ে। এ বিষয়ে কোনও নির্ভরযোগ্য সংখ্যাতত্ব পাওয়া কঠিন। সিগারেটের বিপদ সম্পর্কে প্রচারের কিছুটা ফল যে মিলেছে, তাতে সন্দেহ নেই। কিন্তু বিড়ি শিল্পের সঙ্গে লক্ষ লক্ষ শ্রমিকের জীবিকা জড়িত, এই যুক্তিতে বিড়ির বিরুদ্ধে সে ভাবে প্রচার হয় না। এমনকি, সিগারেটের প্যাকেটে যে ভাবে বিধিবদ্ধ সতর্কীকরণ থাকে, ক্যানসার-আক্রান্ত মানুষের বীভতস ছবি থাকা বাধ্যতামূলক, বিড়ির বেলায় তা-ও হয় না। ভারতের গ্রামাঞ্চলের পুরুষদের মধ্যে ৫২% পুরুষ ও ২৪% মহিলা চিবিয়ে তামাক খান। শহরে সংখ্যাটা যথাক্রমে ৩৮% ও ১২%।গৌতম গুপ্তের রিপোর্ট:

XS
SM
MD
LG