অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রের ষ্টক মার্কটের ক্রেতা বিক্রেতাদের জন্যে বুধবার ছিল কঠিন একটি দিন। এদিন শেয়ারের দরপতন ঘটে ৩ শতাংশ পর্যন্ত। তবে দিন শেষে সূচক সামান্য বাড়ে।

বিশ্লেষকদের ধারনা তেলের দাম কমে যাওয়া, চীনের অর্থনীতির ধিরগতি এবং বিশ্বের সার্বিক অর্থনীতির প্রতি নৈরাশ্যজনক দৃষ্টিভঙ্গী এর কারন। তেলের মূল্য ব্যারেল প্রতি ২৭ ডলার কমেছে যা শেয়ার বাজারে জ্বালানী কোম্পানীগুলোর ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলেছে।

এর আগে জার্মানীর ষ্টকে ২.৮ শতাংশ দরপতন ঘটে। ফ্রান্স ও বৃটেনে দরপতন ঘটে ৩.৫ শতাংশ। টোকিও নিক্কি ইনডেক্সে মূল্যপতন ঘটে ৪ শতাংশ। হংকং এর হ্যাং সেং শেয়ার বাজারে ৩.৫ শতাংশ, কোরিয়ার কোস্পি দাম হারায় ২.৩ শতাংশ এবং চীনের সাংহাই ইনডেক্সে বুধবার দরপতন ঘটে ১.৩ শতাংশ।

XS
SM
MD
LG