অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়ায় চিকিৎসা সুবিধায় আক্রমণ আর্ন্তজাতিক আইনের ভয়ানক লঙ্ঘন: বান কি মুন


জাতিসংঘ বলেছে, সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলের চিকিৎসা সুবিধা এবং স্কুলের উপর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় প্রায় ৫০ জন অসামরিক মানুষ নিহত হয়েছেন। যার মধ্যে শিশুও ছিল।

জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুনের মুখপাত্র জানান, তিনি বলেছেন- এই ধরনের আক্রমণ আন্তর্জাতিক আইনের ভয়ানক লঙ্ঘন।

সিরিয়ার উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে বিমান আক্রমণে ডক্টর্স উইদাউট বর্ডার্স এর সহায়তায় পরিচালিত ৩০ শস্যার হাসপাতাল ধ্বংস হয়ে যায়। এতে সাতজন নিহত হন।

ঐ সময়ে উত্তরাঞ্চলের তিনটি চিকিৎসা সুবিধাও ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থা এমএসএফ বলেছে ইদলিব প্রদেশে মারেত আল নুমানে হাসপাতাল ভবনটিতে চারটি রকেট এসে পড়ে। এখনো আট জন কর্মী নিখোঁজ রয়েছেন।

এমএসএফের মিশন প্রধান মাসিমিলিয়ানো রেবডেঙ্গো বলেছেন “ আপত দৃষ্টিতে মনে হচ্ছে একটা চিকিৎসা কেন্দ্রে ইচ্ছাকৃত ভাবে হামলা চালানো হয়। আমরা কঠোর ভাষায় এর নিন্দা জানাচ্ছি।” তিনি বলেন “হাসপাতাল ধ্বংস হওয়ায়, ৪০ হাজারের মতো স্থানীয় জনগনের জন্য এখন সংঘাতপূর্ণ এলাকায় চিকিৎসা পাওয়ার কোন ব্যবস্থা থাকলো না।”

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর হামলার নিন্দা জানিয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরী’র মুখপাত্র বলেন. "আমরা সকল পক্ষের কাছে আবার অসামরিক নাগরিকদের উপর আক্রমণ থেকে বিরত থাকতে ও সিরিয়ার মানুষের জন্য প্রয়োজনীয় মানবিক সাহায্য দেবার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবার আহবান জানাচ্ছি।

XS
SM
MD
LG