অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র মনে করে সিরিয়ায় সহিংসতা বন্ধের বন্দোবস্ত থিতুই থাকছে


যুক্তরাষ্ট্র মনে করে সিরিয়ায় সহিংসতা বন্ধের দু’মাসের বন্দোবস্ত যথাস্থানেই রয়েছে এবং সহিংসতা বাড়লেও এবং বিদ্রোহি ও সরকার পক্ষের তরফে সহিংসতার অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ সত্বেও মোটামুটি ঐ বন্দোবস্ত থিতুই থাকছে।

পররাষ্ট্র দফতরের মূখপাত্র জন কার্বী বলেছেন- ফেব্রূয়ারীর শেষভাগের আগে ঐ বন্দোবস্ত কার্যকর হবার পুর্বাবধি যা ছিলো সে তুলনায় লড়াইয়ের মাত্রা এখন কমই।

এমোনকি সিরিয়া বিষয়ক জাতিসংঘ দূত স্তাফান দ্য মিস্তুরাও এ সপ্তাহে তাঁর সর্ব সাম্প্রতিক মূল্যায়নে সহিংসতার মাত্রা বৃদ্ধিকে উদ্বেগজনক আখ্যায়িত করলেও, বলেছেন- বহু অঞ্চলেই অস্ত্র বিরতি কার্যকর রয়েছে।

কার্বী বলেছেন- সিরিয়ার উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে বিরোধী দল দখলিত দু’টি শহরের ওপর যে বিমান হামলায় অসামরিক ৪৪ ব্যক্তি নিহত হয়, সিরিয় বাহিনীই সম্ভবত: দায়ি তার জন্যে।

সিরিয়ান অবযারভেটরী ফর হিউম্যান রাইটস বলেছে- সিরিয় জঙ্গি বিমান ঐ হামলা চালায় – মারাত্মক যে হামলায় আঘাত হানা হয় মারা’ত আন নুমান শহরের একটি সবজি বাজারে এবং অপর আক্রমন চালানো হয় কাছাকাছিরই কাফরানবেইলে। উপকূলবর্তী লাতাকিয়া প্রদেশে সোমবার যে গোলাবর্ষন হয়েছে তার পর পরই মঙ্গলবারের এ দু’ বিমান হামলা চালানো হয়।

XS
SM
MD
LG