অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বগুড়ায় একটি শিয়া মসজিদে হামলা এবং রংপুর ও দিনাজপুরে চার্চের ফাদারদের হত্যার হুমকি


বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় শিয়া সম্প্রদায়ের একটি শিয়া মসজিদে দূর্বৃত্তদের হামলা একজন নিহত এবং আহত হয়েছেন আরও তিনজন।

নিহত মোয়াজ্জেম আলী ঐ মসজিদের মোয়াজ্জিন। এই হামলায় ইমাম শাহিনুল ইসলাম সহ আরো দুজন গুলিবিদ্ধ হন। বৃহস্পতিবার মাগরিবের সময় এই হামলা চালানো হয়।
গুলিবিদ্ধ তিনজনকে বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা মোয়াজ্জেমকে মৃত ঘোষণা করেন।
শিবগঞ্জ থাকার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান হাবিব বলেছেন , হরিপুর গ্রামের ঐ মসজিদের মাগরিবের নামাজ শেষ করার মূহুর্তে মসজিদের দরজায় দাড়িয়ে দুই-তিনজন যুবক গুলি চালালে তিনজন গুলিবিদ্ধ হন। পরে হাসপাতালে একজন মারা যান।

উত্তরের জেলা রংপুর এবং দিনাজপুরে বিভিন্ন খ্রিস্টান চার্চের অন্তত ১২ জন ফাদারকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। চিঠি দিয়ে, মোবাইল ফোনে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়ে বা অন্য উপায়ে তাদের ওই হুমকি দেয়া হয়। দিনাজপুরে আরেক ইতালীয় নাগরিক ও একটি চার্চের ফাদার কার্লোস টাপপো-কে মোবাইল ফোনে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়ে বুধবার হুমকি দেয়া হয়েছে। গত ১৮ নভেম্বর দিনাজপুরেই ইতালীয় নাগরিক এবং একটি চার্চের ফাদার পিয়েরো পারলারিকে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করা হয়েছিল। রংপুরের বিভিন্ন চার্চের ১১ জন ফাদারকে বুধবার হত্যার হুমকি দেয়া হয় চিঠি পাঠিয়ে ও অন্য উপায়ে। পুলিশ জানিয়েছে, নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। উল্লেখ্য, রংপুরে ৩ নভেম্বর জাপানি নাগরিক কোনি হোশিকে গুলি করে হত্যা করা হয় এবং আইএস তার দায় স্বীকার করেছিল। মাত্র কয়েকদিন আগে ঢাকাসহ কয়েক স্থানে কমপক্ষে ১২ জন খ্রিস্টান যাজককে হুমকি দেয়া হয় এবং তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাতও করেছিলেন।
এদিকে, জাতিসংঘ মানবাধিকার সংক্রান্ত হাইকমিশনারের পক্ষ থেকে যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর না করার যে বিবৃতি দেয়া হয়েছিল, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র দফতর বৃহস্পতিবার তার প্রতিবাদ জানিয়ে ওই বিবৃতিকে ‘বিক্ষুব্ধ’ করার ঘটনা বলে বর্ণনা করা হয়েছে। ...ঢাকা থেকে আমীর খসরু


শিয়া সম্প্রদায়ের উপরে গ্রেনেড হামলা এবং ঢাকার অদূরে আশুলিয়ায় পুলিশ সদস্যকে হত্যাসহ আরও কিছু জঙ্গী হামলার ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন জামায়াতুল মোজাহেদীন বাংলাদেশ বা জেএমবি’র ৫ জন সদস্যকে আটক করেছে বলে জানিয়েছে। বুধবার রাত এবং বৃহস্পতিবার ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করার কথা জানানো হয়েছে। পুলিশ বলছে, গ্রেফতার করা জেএমবি সামরিক শাখার প্রধান বুধবার রাতে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছেন। পুলিশের মুখপাত্র মনিরুল ইসলাম জানিয়েছেন, জামায়াতের ছাত্র সংগঠন ইসলামী ছাত্র শিবিরের কিছু সংখ্যক সদস্য জেএমবিতে ঢুকে পড়েছে এবং তারা অর্থ যোগানও দিচ্ছে।
উল্লেখ্য, শিয়া সম্প্রদায়ের উপরে গ্রেনেড হামলা এবং পুলিশ সদস্যকে হত্যার দায় ইতোপূর্বে ইসলামিক স্টেট বা আইএস স্বীকার করেছিল। ...ঢাকা থেকে আমীর খসরু

XS
SM
MD
LG