অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশের একজন সেনা কর্মকর্তা বলছেন যে বিদেশিদের কাছে জনপ্রিয় রাজধানী ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে জঙ্গি হামলায় ২০ জন অসামরিক লোক নিহত হয়েছে। দীর্ঘক্ষণ ধরে জিম্মি সংকটের শেষে আজ সেনাবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাইম আশরাফ চৌধুরী এই ঘোষনাটি দেন। তিনি বলেন ঘটনার অধিকাংশ শিকার লোকদের জবাই করে হত্যা করা হয়।

অন্য কর্মকর্তারা বলছেন ২০ জনের সকলেই বিদেশি। মনে করা হচ্ছে অধিকাংশই ইটালি এবং জাপানের নাগরিক।

এর আগে কর্মকর্তারা বলেন যে ঐ রেস্টুরেন্টে ঝটিকা আক্রমণ চালিয়ে কমান্ডো বাহিনী অন্তত ১৩ জন পণবন্দীকে উদ্ধার করে এবং ৬ জন জঙ্গিকে হত্যা করে । ঐ রেস্টুরেন্টে সন্দেহভাজন ইসলামিক স্টেট জঙ্গিরা ৩৫ জনকে পণবন্দী করে রাখে, যাদের মধ্যে বেশ কিছু বিদেশি ও ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা , জাতির উদ্দেশ্য দেওয়া এক ভাষণে এই আক্রমণের নিন্দে জানিয়ে বলেন যে নিরাপত্তা কর্মকর্তারা একজন জঙ্গিকে আটক করেছে। কর্মকর্তারা বলছেন যে অন্য যারা পালিয়ে যেতে পারে তাদের সন্ধান কাজ চলছে। কমান্ডো অভিযানের সময়ে উদ্ধারকৃত পণবন্দীদের মধ্যে শ্রীলংকার একজন এবং জাপানের একজন নাগরিক রয়েছেন। পণবন্দী সংকট শুরু হবার প্রায় ঘন্টা দশেক পরে যখন কমান্ডোরা রেস্টুরেন্টে জড়ো হয় তখন বন্দুকের গুলি এবং বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়।

XS
SM
MD
LG