অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়া জাতিসংঘের পরিদর্শকরা যারা রাসায়নিক অস্ত্রের শিকার এমন কিছু লোকের রক্তের নমুনা সংগ্রহ করেছেন



সিরিয়ার সরকারী সেনারা গত সপ্তাহে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে এই অভিযোগের পর জাতিসংঘের পরিদর্শকেরা রাসায়নিক অস্ত্রের শিকার হয়েছেন এমন কিছু লোকের রক্তের নমুনা সংগ্রহ করেছেন।

সোমবার জাতিসংঘ পরিদর্শক দল দামেষ্কের যেসব এলাকায় হামলা চালনো হয় তার একটি পরিদর্শন করেছেন। সিরিয়ার বিদ্রোহীরা জানিয়েছে যে সরকার রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে এবং তাতে শত শত সাধারণ মানুষ মারা গিয়েছে যার মধ্যে কিছু কিছু পরিবারের সকলেই নিহত হয়েছেন।

জাতিসংঘের পরিদর্শকরা চোরাগোপ্তা আক্রমণে স্বিকার হন। তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়লে একটি গাড়ির ক্ষতি হয় এবং পরিদর্শকরা ফিরে যেতে বাধ্য হন। তবে, ঐ হামলায় কেউ হতহত হয়নি।
সিরিয়ার সরকার এবং বিদ্রোহীরা একে অপরকে এই হামলার জন্য দায়ী করছে।

জাতিসংঘ মুখপাত্র ফারহান হক বলেন, পরিদর্শকরা ডাক্তার এবং যারা হামলার স্বিকার তাদের সংগে সাক্ষাত করতে পেরে সন্তুষ্ট প্রকাশ করেছেন এবং মংলবার তারা আরেকটি এলাকা পরিদর্শন করবেন।

জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন, বলেন, সিরিয়ার সবার জন্যে এই সত্য জানা জরুরি। এই ধরনের রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের ব্যাপারে সারা পৃথিবীর উদ্বিগ্ন হওয়া উচিত। আর সেকারণেই বিশ্বের সকলের দৃষ্টি সিরিয়ার দিকে।


ওদিকে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরী বলেন, সম্প্রতি সিরিয়ায় যে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে তা অনস্বীকার্য এবং ঐ পদক্ষপকে তিনি চরম নৈতিক বর্জিত বলে মন্তব্য করেন।
সোমবার পররাষ্ট্র দপ্তরে এক ভাষণে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বিশ্বাস করেন, যারা জঘন্যতম অস্ত্র ব্যবহার করেছে তাদেরকে অবশ্যই দায়ী করতে হবে। প্রেসিডেন্ট কি পদক্ষেপ নিতে পারেন সে বিষয়ে তিনি কিছু বলেননি।
XS
SM
MD
LG